মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

ঝুঁকি এড়াতে বিদেশফেরত প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা



করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে ও স্থানীয়দের সচেতন করতে টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বিদেশফেরত ৪৫৩ জন প্রবাসীদের বাড়ির সামনে লাল পতাকা টানিয়ে ও স্টিকার লাগিয়ে দেয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ মার্চ) দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বল্লা এলাকায় সিঙ্গাপুর প্রবাসী আমিনুল ইসলাম ও মফিজুলের বাড়িতে লাল পতাকা ও স্টিকার লাগিয়ে এ কার্যক্রমের সূচনা করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আরা নীপা, সহকারী কমিশনার ভূমি শাহরিয়ার রহমান, কালিহাতী থানার ওসি হাসান আল মামুন ও বল্লা ইউপি চেয়ারম্যান হাজী চাঁন মাহমুদ পাকির আলী প্রমূখ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আরা নিপা বলেন, এ উপজেলায় গত ১৫ দিনে বিদেশ থেকে ৪৫৩ জন প্রবাসী এসেছে। আমরা প্রত্যেকের বাড়িতে একটি করে লাল পতাকা এবং একটি স্টিকার লাগিয়ে দিয়েছি। সেখানে সেই ব্যক্তির নাম-ঠিকানা এবং কবে বাংলাদেশে এসেছেন ও হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ কবে শেষ হবে সে তথ্য আছে এবং সাথে আমাদের প্রশাসনের নাম্বার দেওয়া আছে। প্রবাসী যারা বাংলাদেশে এসেছেন তাদের পরিবারকে আমরা হালকাভাবে নিচ্ছি না।

আমি একই পরিবারের সকল সদস্যকে তারা যেন বাহিরে খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া না যায় এবং ওই বাড়িতে যে বয়স্ক সদস্য আছে তারা বিশেষ করে নামাজ, মসজিদে জামাতে যাচ্ছে, সে সুস্থ কিনা এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখার জন্য এবং ওই বাড়ির কেউ অসুস্থ হয়েছে কিনা সেটা জানার জন্য ওই বিদেশফেরত প্রবাসীর প্রত্যেকের প্রতিবেশীকে আমরা সচেতন করেছি। প্রতিবেশীরা জানাবে তারা বাহিরে বের হয় কিনা, জনসমাগম হচ্ছে কিনা। ইতিমধ্যে আমাদের এখানে হাট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় শুধু কিছু বাজার এখানে আছে জরুরি প্রয়োজনের জন্য।

এছাড়াও স্কুল-কলেজ সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বন্ধ রয়েছে। সকল ধরনের জনসমাবেশ, জনসভা, ধর্মীয় সভা এগুলো নিষেধ করা হয়েছে। আমরা আশা করছি আমাদের সকলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে এই সংক্রমণ রোধে ইনশাল্লাহ্ সফল হবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: