সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

জ্বালানি খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন চায় ইরান



নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে ইরান আগ্রহী বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। শুক্রবার আজারবাইজানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে হাসান রুহানি এ কথা বলেন। ১৮তম জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন-ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনে যোগদান উপলক্ষে আজারবাইজান সফরে রয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের পাশাপাশি বাকু কংগ্রেস সেন্টারে বৈঠক করেন তারা। পরে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের বৈঠকের বিষয়ে ব্রিফ করেন।

রোহিঙ্গা সঙ্কট বিষয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির কথা উল্লেখ করে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেন, আন্তজার্তিকভাবে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য যে কাজ করার দরকার সেটা তারা করবেন। বৈঠকে ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, মুসলিম দেশগুলোর উচিৎ পারস্পরিক মতবিরোধ দূরে ঠেলে একটি পরিবারের মতো ঐক্যবদ্ধ থাকা। তিনি বলেন, মুসলিম দেশগুলো ঐক্যবদ্ধ থাকলে বিশ্বের কোনো শক্তি এমনকি আমেরিকাও তাদের জন্য কোনো সমস্যা সৃষ্টি করতে পারবে না।

অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের উন্নয়নে সন্তোষ প্রকাশ করে রুহানি বলেন, ইরান অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বিশেষকরে জ্বালানি খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে প্রস্তুত রয়েছে। ইরানের প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানেও সহযোগিতা করতে প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের সব দেশ বিশেষকরে বন্ধুপ্রতীম মুসলিম দেশ ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গাদের সর্বশেষ পরিস্থিতিও তুলে ধরেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ রোহিঙ্গা মুসলমানদেরকে তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর জন্য মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আয়তনের দিক থেকে বাংলাদেশ একটি ছোট্ট দেশ হলেও জনসংখ্যা অনেক। এরপরও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বেশ উন্নতি সাধন করতে সক্ষম হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: