বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ



কোভিড-১৯ আতঙ্কে কারাগারে দিনযাপন করছেন সৌদি আরবের প্রিন্সেস বাসমাহ বিনতে সৌদ। কারাগারে তার সঙ্গী মেয়েও করোনা সংক্রমণের ভয়ে আছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোনো ধরনের অভিযোগ ছাড়াই মেয়েসহ এক বছর ধরে জেলে বন্দি আছেন ৫৬ বছর বয়সী প্রিন্সেস বাসমাহ। কারামুক্তির জন্য তিনি আবেদন জানালেও এতে সাড়া দেয়নি সৌদি কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, প্রিন্সেস বাসমাহ ও তার মেয়ে রিয়াদের আল-হাইর কারাগারে বন্দি আছেন। এর মধ্যে ওই কারাগারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। প্রিন্সেস বাসমাহ ও তার মেয়ে করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন বলে আশঙ্কায় আছেন বলে পরিবার জানিয়েছে। তবে এ বিষয়ে সৌদির কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গত বছরের মার্চে রহস্যজনকভাবে অদৃশ্য হয়ে যান প্রিন্সেস বাসমাহ। এর পর তাকে আর প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। সুদর্শনী বাসমাহ সৌদি রাজপরিবারের রহস্যময় চরিত্র।

সৌদি রাজপরিবারের সদস্য প্রিন্সেস বাসমাহকে নারী অধিকার ও সাংবিধানিক রাজতন্ত্রের সমর্থক হিসেবে দেখা হয়।

গত মাসে এক টুইটে প্রিন্সেস বাসমাহ দাবি করেন, তাকে অপহরণের পর কোনো অভিযোগ ছাড়াই কারাগারে বন্দি করে রাখা হয়েছে। তার সঙ্গে নিজের ২৮ বছর বয়সী মেয়েও রয়েছে।

তিনি আরও জানান, তার স্বাস্থ্যের অবস্থা খুবই খারাপ। এ অবস্থায় তিনি মারাও যেতে পারেন। তাই তিনি সৌদির বাদশাহ ও যুবরাজের কাছে মুক্তির আবেদন জানান।

প্রিন্সেস বাসমাহর ওই টুইট পরে মুছে ফেলা হয়। দীর্ঘদিন ধরে কারাবন্দি বাসমাহর মুক্তির বিষয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: