বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

জেনে নিন বিদ্যুৎ বিল কমানোর ১০ উপায়



লাইফ স্টাইল ডেস্ক:: পরিবারের মাসিক খরচের মধ্যে বিদ্যুৎ বিল অন্যতম। অন্যান্য খরচের আপনি যে হিসাবই করুন, বিদ্যুৎ বিলের হিসাব মাথায় রাখতেই হয়। মাঝে মাঝে বিদ্যুৎ বিল ধারণার চেয়ে বেশি হয়ে যায়। কিন্তু একটু সতর্ক হলে বিদ্যুৎ বিল অনেকটা কমিয়ে ফেলা যায়। এজন্য কিছু বিষয় খেয়াল রাখলেই যথেষ্ট।

১. মোবাইল ফোনে চার্জ শেষ হবার পর বিদ্যুৎ লাইনের সুইচটি অফ রাখুন। কারণ সুইচ অন থাকলে কিছুটা অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ হয়।

২. বাতির ক্ষেত্রে সিএফএল বা এলইডি ব্যবহার করুন। সিএফএল বা এলইডিতে ফিলামেন্টের তুলনায় সার্কিট ব্যবহার হওয়ায় বিদ্যুতের খরচ কমে।

৩. বৈদ্যুতিক যন্ত্র কেনার সময় যন্ত্রটির স্টার রেটিংয়ে দেখুন। যে যন্ত্রের স্টার রেটিং যত বেশি তার বিদ্যুৎ খরচ ততো কম।

৪. পুরনো তার বা পুরনো ইলেক্ট্রিক যন্ত্রে বেশি বিদ্যুৎ ব্যবহার হয়। তাই ১০ থেকে ১৫ বছরের পুরনো যন্ত্র ব্যবহার করলে বিদ্যুৎ বিল বেশি আসতে পারে।

৫. ঘন ঘন এসি চালু ও বন্ধ করলে বিদ্যুৎ খরচ বেশি। একটানা চালিয়ে রাখাই ভালো। তাহলে কম ইউনিট ব্যবহার হবে।

৬. এসির আউটলেট রোদহীন স্থানে রাখতে হবে। রোদ পড়লে এসির আউটলেট গরম হয়। বিদ্যুৎ খরচ বেশি হয়।

৭. এসির তাপমাত্রা সাধারণত ২৪ ডিগ্রির নীচে না নামানো ভালো। ২৪ ডিগ্রির নীচে নামালে অনেক বেশি বিদ্যুৎ খরচ হয়।

৮. ফ্রিজ ব্যবহারের ক্ষেত্রে দিনে এক ঘণ্টা বন্ধ রাখুন। এতে যন্ত্রও বিশ্রাম পাবে, বিদ্যুৎও বাঁচবে।

৯. ফ্রিজে কোনো খাবার রাখার আগে সেই খাবার ঠাণ্ডা করে নিন। তাতে বিদ্যুৎ খরচ কম হবে।

১০. আপনার ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রগুলো নিয়মিত সার্ভিসিং করান। এতে বিদ্যুৎ খরচ কমবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: