সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

জুন মাসে জানা যাবে সুন্দরবনের বাঘের সংখ্যা



21. tigerনিউজ ডেস্ক::
চলতি বছরের জুন মাসে জানা যাবে সুন্দরবনের বাঘের সংখ্যা। ‘ক্যামেরা ট্র্যাপিং’ পদ্ধতিতে সুন্দরবনে চলা বাঘ গণনার ফলাফল এ বছরের জুন মাস নাগাত ঘোষণা করা হতে পারে। সুন্দরবনে বাংলাদেশের অংশে বাঘের চূড়ান্ত সংখ্যা জানতে গত দুই বছর ধরে চলছে বাঘ শুমারি।

ক্যামেরা ট্র্যাপিং বা ফাঁদ পেতে ছবি তোলা পদ্ধতিতে গণনার কাজ এখন প্রায় শেষের পথে। ধারণা করা হচ্ছে আগামী জুন মাসেই সুন্দরবনে বাংলাদেশের অংশে কত বাঘ আছে তার চূড়ান্ত ও যথাযথ সংখ্যা পাওয়া যাবে। এর আগে সর্বশেষ ২০০৪-০৫ পাগ-মার্ক বা পায়ের ছাপ পদ্ধতিতে সুন্দরবনে বাঘ শুমারি করা হয়েছিল। ঐ পদ্ধতিতে বাংলাদেশ অংশে ৪৩০টি এবং ভারতীয় অংশে ২৭০টি বাঘ রয়েছে বলে জানা গিয়েছিলো। কিন্তু বাঘ শুমারি কর্মকর্তারা এখন বলছেন, সুন্দরবনের জন্য পাগ-মার্ক পদ্ধতি ত্রুটিপূর্ণ ছিলো।

যার ফলে বাঘের সংখ্যা বেশি উপস্থাপিত হয়েছে। প্রকৃত পক্ষে বাঘের সংখ্যা আরো কম। বণ্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণের খুলনা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোঃ জাহিদুল কবির জানান, প্রথম ধাপে ২০১৩ থেকে ২০১৪ সালের এপ্রিল পর্যন্ত দক্ষিণ-পশ্চিম ও দক্ষিণ-পূর্ব ব্লকে ৭০০ বর্গকিলোমিটার এলাকায় ‘ক্যামেরা ট্র্যাপে’র মাধ্যমে গণনা করা হয়। একই পদ্ধতিতে দ্বিতীয় ধাপে ২০১৪ সালের ১১ নভেম্বর থেকে দক্ষিণ ব্লকে ৬৪০ বর্গকিলোমিটারে ‘ক্যামেরা ট্র্যাপ’ (ছবি তোলা) পদ্ধতিতে বাঘ গণনার কাজ শুরু হয় সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে। চলতি মার্চ মাসে এই পদ্ধতিতে বাঘের ছবি সংগ্রহ শেষ হবে। মার্চের শেষে বন থেকে ক্যামেরা তুলে আনা হবে। ‘দুই ধাপে পাওয়া এ সকল তথ্য বিচার-বিশ্লেষণ করে জুন মাসে সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে বাঘের সংখ্যা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করা হবে বলে, তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: