রবিবার, ১ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

চার মৃত ব্যক্তিসহ ৭০ জনকে আসামি করে মামলা



খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার গাজীনগরে গত মঙ্গলবার (২ মার্চ) বিজিবির সঙ্গে সংঘর্ষে পাঁচ জন নিহতের ঘটনায় মৃত চার ব্যক্তিসহ ৭০ জনকে আসামি করে মামলা করেছে বিজিবি। মামলায় ১৯ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) সকালে মাটিরাঙ্গা থানায় পলাশপুর ৪০ বিজিবির পূর্ব খেদাছড়া চেকপোস্টের হাবিলদার ইছহাক আলী বাদী হয়ে সরকারি কাজে বাধা ও বিজিবির অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন।

মাটিরাঙ্গা থানার ওসি সামসুদ্দীন ভূইয়া মামলা গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।

গত মঙ্গলবার মাটিরাঙ্গার গাজীনগরে পিডিবির নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ লাইনের জন্য কাটা পড়া গাছ স মিলে নেওয়ার পথে বিজিবির সঙ্গে গ্রামবাসীর বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষে গুলিতে এক বিজিবি সদস্যসহ পাঁচ জন নিহত হন। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসনের তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করছে। আগামী রবিবার (৮ মার্চ) কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা রয়েছে।

সুষ্ঠু তদন্তের আশ্বাস আইজিপির
বিজিবি-গ্রামবাসী সংঘর্ষের ঘটনায় বিজিবির পক্ষ থেকে মামলার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, পুলিশের কাছে যেহেতু মামলা এসেছে সেটি তদন্ত করে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা করা হবে। জনগণকে পুলিশের ওপর আস্থা রাখতে হবে। একটি ঘটনায় একাধিক মামলা হলেও সেটি এক সঙ্গে তদন্তের সুযোগ রয়েছে। তদন্তে যা উদঘাটিত হবে তা দিয়ে মামলার নিষ্পত্তি হবে।

বৃহস্পতিবার সকালে খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশের অফিসার্স মেস উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা জানান।

পরে তিনি খাগড়াছড়ি এপিবিএন ও বিশেষায়িত পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে পুলিশের কমান্ডো কোর্সের মহড়া ও উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন। এসময় পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক ও খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার আব্দুল আজিজসহ সামরিক বেসামরিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: