মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

খালেদার বক্তব্যে সংসদে ক্ষোভ



16.songsodনিউজ ডেস্ক::
শনিবার কুমিল্লার জনসভায় দেওয়া খালেদা জিয়ার বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন সংসদ সদস্যরা। বিএনপি চেয়ারপারসনের বক্তব্য নিয়ে একাধিক সদস্য পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় তো খালেদা জিয়া পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর কাছে ছিলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) মুক্তিযুদ্ধের কী বুঝবেন?

খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানেন না বলেও সংসদ সদস্যরা মন্তব্য করেন।

রোববার (৩০ নভেম্বর) বিকেলে দশম জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশনের সমাপনী কার্যদিবসের শুরুতেই ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন সাবেক মন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ ও ড. হাছান মাহমুদ।

আলোচনার সূত্রপাত করে আবুল কালাম আজাদ বলেন, দেশে যখন মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে তখন তিনি (খালেদা জিয়া) পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর কাছে ছিলেন। সারাবিশ্ব জানে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে। ১৯৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৭৯’র গণঅভ্যুত্থান, ৭০’র নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হয়েছে। এরপরেও যখন ক্ষমতা হস্তান্তর করেনি তখন বঙ্গবন্ধু কিভাবে মুক্তিযুদ্ধ হবে, কিভাবে এ যুদ্ধ পরিচালিত হবে এসব বিষয়ে ৭ মার্চ রেসকোর্সের ময়দানে দিক নির্দেশনা দিয়েছিলেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে। তিনি (খালেদা জিয়া) বলে বেড়াচ্ছেন আওয়ামী লীগ নাকি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ যদি গণতন্ত্রে বিশ্বাস না করতো তাহলে ৫ জানুয়ারির নির্বাচন হতো না।

তিনি আরও বলেন, একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী একটি দলের চেয়ারপারসনের স্মরণশক্তি কি এতই কম। তার (খালেদা জিয়ার) স্মরণশক্তি কমে গেছে, এ কারণে ইতিহাস মনে রাখতে পারছেন না।

এ সময় খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, যদি আপনারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেন, তাহলে আগামীতে যে নির্বাচন হবে, সেজন্য জনগণের কাছে যান, তারা যদি ভোট দেয় তাহলে আপনি বিজয়ী হবেন।

এরপর খালেদার বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়ার বক্তব্য শুনে মনে হলো যুবদল ও ছাত্রদলের কোন ক্যাডারের বক্তব্য। তার (খালেদা) বক্তব্যে কোনো সঠিক তথ্য ছিলো না। তিনি (খালেদা) বলেছেন আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের দল নয়।

এ সময় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরে হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের সময় গঠিত সরকারের একজন বেতনভুক্ত কর্মচারী ছিলেন জিয়াউর রহমান। তিনি (খালেদা) এখন বলছেন আওয়মী লীগ মুক্তিযুদ্ধের দল নয়। কয়দিন পরে তিনি (খালেদা) হয়তো বলবেন, জামায়াতে ইসলাম মুক্তিযুদ্ধের দল। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি ৯ মাস পাকিস্তানি সেনাবাহিনীদের আতিথেয়তায় ছিলেন। তাই তিনি রাজাকার, আল-বদরদের মুক্তিযোদ্ধা মনে করতেই পারেন।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া বলেছেন, গত ৫ বছরে দেশে কোনো উন্নয়ন হয়নি। দেশে যদি উন্নয়ন না হয়ে থাকে তাহলে গত ৬ বছরে যে ফ্লাইওভার ও ব্রিজ হয়েছে সেগুলো দিয়ে আপনি যাবেন না। আপনি (খালেদা জিয়া) জনসভাগুলো করতে যান এই ব্রিজের উপর দিয়ে। ব্রিজের উপর দিয়ে যাবেন না। নিচ দিয়ে নৌকা দিয়ে যাবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: