শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

কাশ্মীরে দমন-পীড়নের প্রতিবাদ না করায় শাহরুখের সমালোচনা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে মুসলমানদের দমন-পীড়নের প্রতিবাদ না করায় বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের সমালোচনা করেছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর। গত শুক্রবার এক টুইটবার্তায় আসিফ গফুর লিখেছেন, ‘বলিউডের অসুখেই আক্রান্ত থেকো শাহরুখ। কিন্তু বাস্তবে ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এজেন্ট কুলভূষণ যাদব, উইং কমান্ডার অভিনন্দনের অবস্থা দেখ।

এর চেয়ে আপনি জম্মু-কাশ্মীরে অত্যাচারের বিরুদ্ধে শান্তি ও মানবিকতার প্রচার করতে পারতেন। হিন্দুত্ব ও নাৎসি আদর্শে ভারতের রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারতেন শাহরুখ।’ এর আগে বৃহস্পতিবার শাহরুখ খান তার টুইটার অ্যাকাউন্টে নেটফ্লিক্সের নয়া ওয়েবসিরিজ ‘বার্ড অফ ব্লাড’-এর ট্রেলার প্রকাশ করেন।

ওই ট্রেলারে পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে ভারতীয় গুপ্তচরের ভূমিকায় অভিনয় করছেন ইমরান হাসমি। স্পাই-থ্রিলারটির প্রযোজনা করেছে শাহরুখ খানের সংস্থা। ‘বার্ড অফ ব্লাড’ ট্রেলারের জবাবেই শাহরুখের সমালোচনা করে এমন টুইট করেন আসিফ গফুর।

ট্রেলারে দেখা গেছে, পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে বিপজ্জনক মিশনে বেরিয়েছেন এক ভারতের গুপ্তচর। রয়েছে জঙ্গিদের গোলাগুলির দুর্ধর্ষ লড়াই।

প্রসঙ্গত, গত ৫ আগস্ট নরেন্দ্র মোদির সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা (ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ) বাতিল করে দিয়েছে। একই সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠন করা হয়েছে। কাশ্মীরি সংগঠনগুলো বলেছে, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের অর্থ হলো- সেখানকার অধিবাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা।

৩৭০ ধারা বাতিল কেন্দ্র করে কাশ্মীরে কারফিউ জারি করে রেখেছে ভারতীয় প্রশাসন। বিক্ষোভ ঠেকাতে দেশের বাকি অংশের সঙ্গে হিমালয় অঞ্চলটির সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হিন্দুত্ববাদী সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘোষণা সামনে রেখে কাশ্মীরের ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়। এ মুহূর্তে ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর বিশ্বের সবচেয়ে সামরিকীকৃত এলাকায় পরিণত হয়েছে। সেনাবাহিনী, আধাসামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্য মিলিয়ে সেখানে সাত লক্ষাধিক নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

অস্থায়ী কারাগার বানানো হয়েছে হোটেল, গেস্ট হাউস, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন ভবনকে। কাশ্মীরের পুরো উপত্যকাটি যেন পরিণত হয়েছে একটি কারাগারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: