রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

কলেজে গিয়েই ভর্তি হতে পারবেন একাদশের শিক্ষার্থীরা



নিউজ ডেস্ক:: একাদশ শ্রেণির তৃতীয় ধাপের ভর্তি শেষ হলেও এখনও সারাদেশে প্রায় পাঁচ লাখ শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারেনি। তাদের ভর্তির জন্য আগামী সপ্তাহ থেকে আসন খালি থাকা সাপেক্ষ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড কার্যক্রম উন্মুক্ত (কলেজে গিয়ে ভর্তি) করার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক সোমবার জাগো নিউজকে বলেন, একাদশ শ্রেণির ভর্তির ক্ষেত্রে তৃতীয় ধাপ পর্যন্ত সারাদেশে ১২ লাখের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে। হিসাব অনুযায়ী এখনও ৬০ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তির বাইরে রয়েছে। তাদের জন্য ভর্তি কার্যক্রম উন্মুক্ত করা হবে।

চেয়ারম্যান বলেন, সারাদেশে সকল কলেজ থেকে শূন্য আসন সংগ্রহ করা হচ্ছে, আসন সংখ্যা পাওয়ার পর এ কার্যক্রম উন্মুক্ত করা হবে। আসন খালি থাকলে শিক্ষার্থীরা সরাসরি কলেজে গিয়ে ভর্তি হতে পারবে। সেই ক্ষেত্রে আর অনলাইন আবেদনের প্রয়োজন হবে না। এদিকে, একাদশ শ্রেণিতে সারাদেশে তিন ধাপের ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ হলেও এখনও চার লাখ ৯৩ হাজার ৪৩৯ জন শিক্ষার্থী ভর্তি প্রক্রিয়ার বাইরে রয়ে গেছে। ঢাকা বোর্ডের কলেজগুলোতেই আসন ফাঁকা রয়েছে দুই লাখের বেশি।

২০১৯ সালের মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন শিক্ষার্থী পাস করে। তাদের মধ্যে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি প্রক্রিয়া নিশ্চিত করেছে ১২ লাখ ৫৬ হাজার ৩২৬ জন শিক্ষার্থী। শিক্ষা বোর্ড বলছে, ভর্তি না হওয়া শিক্ষার্থীদের অনেকে ভর্তির জন্য আবেদন করে কলেজ পেয়েও ভর্তি নিশ্চিত করেনি। অন্যদিকে অনেকে আবার ভর্তির জন্য আবেদনই করেনি।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক হারুন অর রশীদ জাগো নিউজকে বলেন, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির তিন ধাপে অনলাইন আবেদন ও ভর্তি কার্যক্রম শেষ হয়েছে। ভর্তি প্রক্রিয়াকেও আগের চেয়ে সহজ করা হয়েছে। তারপরও অনেক শিক্ষার্থী ভর্তির বাইরে রয়ে গেছে, সেটি ভাবনার বিষয়। তবে আজ (সোমবার) ক্লাস শুরু হওয়ার পর আসন খালি থাকা সাপেক্ষে তারা চাইলে ভর্তি হতে পারবে। আমরা তাদের জন্য ভর্তির জন্য উন্মুক্ত করে দেব।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, এ বছর এই বোর্ডের অধীন কলেজগুলোতে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছে তিন লাখ ১৬ হাজার ৮৬৩ জন শিক্ষার্থী। দেশের অন্যান্য শিক্ষা বোর্ডের তুলনায় এই বোর্ডে শিক্ষার্থী ভর্তির হার সবচেয়ে বেশি। তবু এই বোর্ডে এখনও আসন খালি রয়েছে প্রায় দুই লাখ। এ কারণে শেষ পর্যন্ত কোনো শিক্ষার্থীই ভর্তি প্রক্রিয়ার বাইরে থাকবে না বলে আশা করছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক।

গত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) একাদশ শ্রেণির ভর্তি কার্যক্রম শেষ হয়েছে। আজ থেকে সারাদেশে হয়েছে একাদশ শ্রেণির ক্লাস। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সোমবার পাঠ্যপুস্তক বোর্ডে একাদশের পাঠ্যপুস্তক বাজারজাতাকরণে প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: