বৃহস্পতিবার, ৬ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

করোনায় ইউরোপে মৃত্যু ৩০ হাজার ছাড়াল



 

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসে ইউরোপে মৃত্যুর সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। বুধবার বার্তা সংস্থা জানিয়েছে এই তথ্য।

কোভিড-১৯ এ সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ইউরোপে মোট ৩০ হাজার ৬৩ জন মারা গেছে এবং আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ ৫৮ হাজার ৬০১ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মারা গেছে ইতালিতে। এ সংখ্যা ১২ হাজার ৪২৮ জন। স্পেনে আট হাজার ১৮৯ জন এবং ফ্রান্সে তিন হাজার ৫২৩ জন।

এদিকে ইউরোপে মৃত্যুর সংখ্যা ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা আগে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, করোনায় তাদের মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজার ৭৬ জন। এ সংখ্যা শনিবারের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি এবং চীনের চেয়েও বেশি।

বুধবার পর্যন্ত করোনায় নিহতের সংখ্যা ৩২ হাজার ছাড়িয়েছে। আর আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে নয় লাখ। দুটি সংখ্যাই হু হু করে বাড়ছে, কোথাও স্থির থাকছে না।

চীনের উহান থেকে বিস্তার শুরু করে গত আড়াই মাসে বিশ্বের ২০০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। চীনে করোনার প্রভাব কমলেও বিশ্বের অন্য কয়েকটি দেশে মহামারি রূপ নিয়েছে।

এই ভাইরাসে চীনের মূল ভূখণ্ডে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৫১৮ জন। আর মারা গেছে তিন হাজার ৩০৫ জন। তবে এখন চীনে এই হার উল্লেখযোগ্য হারে কমে এসেছে। গত কয়েকদিনে দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে। যে উহান থেকে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে সেখানের নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে। জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। নিউমোনিয়ার মতো লক্ষণ নিয়ে নতুন এ রোগ ছড়াতে দেখে চীনা কর্তৃপক্ষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সতর্ক করে। এরপর ১১ জানুয়ারি প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। ঠিক কীভাবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়েছিল- সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নন বিশেষজ্ঞরা। তবে ধারণা করা হচ্ছে, উহানের একটি সি ফুড মার্কেটে কোনো প্রাণী থেকে এ ভাইরাস প্রথম মানুষের দেহে আসে। তারপর মানুষ থেকে ছড়াতে থাকে মানুষে।সূত্র : ঢাকাটাইমস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: