বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

এক মাসেই তৃতীয় বারের মতো বাড়লো স্বর্ণের দাম



নিউজ ডেস্ক:: স্বর্ণের দাম বাড়ছেই। এরই ধারবাহিকতায় রোববার ফের স্বর্ণের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। ফলে গত দেড় মাসে স্বর্ণের দাম বাড়ল পাঁচবার। এর মধ্যে চলতি মাসের ১৮ দিনেই বাড়ল তিন দফা।

এবারও প্রতি ভরি স্বর্ণে ১ হাজার ১৬৭ টাকা বাড়িয়ে নতুন দর নির্ধারণ করেছে সংগঠনটি। ফলে এখন ২২ ক্যারেটের এক ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম পড়বে ৫৬ হাজার ৮৬২ টাকা। এর আগে ছিল ৫৫ হাজার ৬৯৫ টাকা।রোববার (১৮ আগস্ট) এক বিজ্ঞপ্তিতে নতুন করে দাম বাড়ানোর তথ্য জানিয়েছে বাজুস। সোমবার (১৯ আগস্ট) থেকে স্বর্ণের এ নতুন দর কার্যকর হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে ক্রমাগত স্বর্ণের দাম ঊর্ধ্বমুখী। ফলে দেশীয় বুলিয়ান মার্কেটে স্বর্ণের দাম বাড়ায়, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের সর্বসম্মত মতামতের ভিত্তিতে দাম বাড়ানোর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। নতুন দাম অনুযায়ী, সোমবার থেকে ২২ ক্যারেটের প্রতি গ্রাম স্বর্ণ ৪ হাজার ৮৭৫ টাকা করে বিক্রি করা হবে।

২১ ক্যারেটের প্রতি গ্রাম স্বর্ণ বিক্রি করা হবে ৪ হাজার ৬৭৫ টাকা। ফলে ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরির দাম পড়বে ৫৪ হাজার ৫২৯ টাকা। ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতি গ্রাম বিক্রি করা হবে ৪ হাজার ২৪৫ টাকায়, এতে প্রতি ভরির দাম পড়বে ৪৯ হাজার ৫১৩ টাকা।

এ ছাড়া সনাতন পদ্ধতিতে প্রতি গ্রাম স্বর্ণ বিক্রি করা হবে ২ হাজার ৫০০ টাকা করে, এতে প্রতি ভরির দাম পড়বে ২৯ হাজার ১৬০ টাকা। এর আগে সনাতন পদ্ধতিতে প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ছিল ২৭ হাজার ৯৯৩ টাকা।

স্বর্ণের দাম বাড়ানো হলেও কিছুটা কমেছে রুপার দাম। ২১ ক্যারেটের প্রতি গ্রাম রুপার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৮০ টাকা। এতে প্রতি ভরির দাম পড়বে ৯৩৩ টাকা। বর্তমানে প্রতি ভরি রুপার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা।

এর আগে গত ৭ আগস্ট বাজুস স্বর্ণের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়, যা কার্যকর হয় গত ৯ আগস্ট থেকে। ওই দাম বাড়ানোর ফলে আজ রোববার পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ৫৫ হাজার ৬৯৫ টাকা, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫৩ হাজার ৩৬২, ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতি ভরি ৪৮ হাজার ৩৪৭, সনাতন পদ্ধতিতে স্বর্ণ প্রতি ভরি ২৭ হাজার ৯৯৩ এবং ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপা ১ হাজার ১৬৬ টাকায় বিক্রি হয়।

গত ৫ আগস্টও আরেক দফা দাম বাড়ানো হয়। সে সময় ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫৪ হাজার ৫২৯ টাকা, ২১ ক্যারেট ৫২ হাজার ১৯৬ এবং ১৮ ক্যারেট ৪৭ হাজার ১৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এ ছাড়া সনাতন পদ্ধতিতে স্বর্ণের দাম ২৭ হাজার ৯৯৩ টাকা এবং ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার দাম ৯৩৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

এর আগে আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে গত এক দশকের মধ্যে স্বর্ণের দাম সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে বলে দাবি করে বাজুস। এর পরিপ্রেক্ষিতেই দফায় দফায় বাড়ানোর ঘোষণা এলো বাজুসের পক্ষ থেকে। চলতি মাসের আগে ২৩ ও ৩ জুলাই দুই দফা দাম বাড়ানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: