শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

উ. কোরিয়ায় নির্বাচন: ভোট পড়েছে ৯৯.৯৮ শতাংশ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: দেশজুড়ে অনুষ্ঠিত স্থানীয় নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। রোববার পারমাণবিক অস্ত্রধারী এই দেশটির প্রাদেশিক পরিষদের প্রতিনিধি নির্বাচনে অনুষ্ঠিত এই ভোটে প্রায় ১০০ শতাংশ ভোট পড়েছে।

প্রার্থীদের মধ্যে কোনো ধরনের প্রতিযোগিতা না থাকলেও উত্তর কোরিয়ায় নির্বাচনকে সাধারণত একটি প্রয়োজনীয় রাজনৈতিক আনুষ্ঠানিকতা হিসেবে দেখা হয়। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, কিম জং উনের শাসনের প্রতি আনুগত্য জোরদার করার লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষ একটি জনপ্রিয় ম্যান্ডেট দাবি করে এই ভোটের মাধ্যমে।

সারাদেশে অনুষ্ঠিত এবারের নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৯৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ। ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত দেশটির এই নির্বাচনের চেয়ে এবার ভোট পড়ার হার বেড়েছে ০.০১ শতাংশ। রোববার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ এক প্রতিবেদনে বলেছে, শুধুমাত্র যারা বিদেশ সফর কিংবা সমুদ্রে কর্মরত রয়েছেন; তারা ভোট দিতে পারেননি। এমনকি যারা অসুস্থ কিংবা বার্ধক্যজনিত কারণে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেননি, তারা বাসায় থেকে মোবাইল ব্যালট বাক্সে ভোট দিয়েছেন।

বিশ্ব থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন এই দেশটির প্রাদেশিক, শহর এবং কাউন্টি পরিষদের নির্বাচন প্রত্যেক চার বছর পর অনুষ্ঠিত হয়। এক দলীয় এই নির্বাচনে সাধারণত ৯৯ শতাংশ ভোটারই তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। প্রতিদ্বন্দ্বীহীন একক প্রার্থীর পক্ষে ৯৯ শতাংশ মানুষই ‘হ্যাঁ’ ভোট দেন।

কোরীয় ধাঁচের সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্রকে মহিমান্বিত করতে ‘অনন্য ঐক্যের’ উদাহরণ হিসেবে এই ভোটকে তুলে ধরা হয়। নর্থ হ্যামইয়ং প্রদেশের একটি ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট কিম জং উন। কেসিএনএ বলছে, কাউন্টি পরিষদের জু সং হো এবং জং সং সিক নামের দু’জন প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন তিনি।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় এই সংবাদমাধ্যম বলছে, ভোট প্রদানের পর নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রতিনিধিদের জনগণের বিশ্বস্ত সেবক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন কিম জং উন। একই সঙ্গে মানুষের প্রত্যাশিত জীবন-যাপনের জন্য কাজ করতে সবাইকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। ২০১৪ সালে দেশটির পার্লামেন্ট নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন কিম জং উন। দেশটির সর্বোচ্চ পরিষদ সুপ্রিম পিপলস অ্যাসেম্বলিতে অংশ নিয়ে ১০০ ভাগ ভোট পান তিনি।

সূত্র: এএফপি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: