শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

ইতালির নাগরিকত্ব হারাতে পারেন ৩ হাজার বাংলাদেশি



প্রবাস ডেস্ক:: ইতালিতে দ্রুত নাগরিকত্ব পেতে জন্মসনদ, পুলিশ ক্লিয়ারেন্সে ভুয়া সিল এবং অনুবাদ ভুয়াসহ অন্যান্য অনিয়মের দায়ে ইতালির (নাগরিকত্ব) পাসপোর্ট হারাতে পারেন দুই হাজার আটশ বাংলাদেশি। ইতোমধ্যে ইতালির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জালিয়াতির সাথে জড়িত বাংলাদেশিদের ব্যাপারে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নিয়েছে এবং এর ব্যাখ্যা চেয়ে চিঠি দিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় তিন হাজার বাংলাদেশি নির্দিষ্ট সময়ের আগে অর্থের বিনিময়সহ বিভিন্ন অনিয়ম করে দ্রুত ইতালির নাগরিকত্ব (পাসপোর্ট) লাভ করেন। এর মধ্যে একটি তদন্তে বাংলাদেশের জন্মসনদ ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ভুয়া সার্টিফিকেটের সত্যতা পাওয়া গেছে।

চার বছর পূর্বে এই তদন্ত শুরু হয় পরে এর সত্যতা নিশ্চিত হলে চলতি বছর এর কার্যক্রমের ব্যবস্থা নেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ইতালির রাষ্ট্রপ্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তথ্যের ভিত্তিতে যে সব বাংলাদেশি পাসপোর্ট জমা দেওয়ার ২৪ মাসের পূর্বে ইতালিয়ান পাসপোর্ট (নাগরিকত্ব) গ্রহণ করেন তাদের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নিয়েছেন। অনিয়মের কারণ সঠিকভাবে ব্যাখা দিতে না পারলে নাগরিকত্ব ফেরত নেবে ইতালীয় সরকার।

এ প্রসঙ্গে সাবেক বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি নুরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু জানান, দীর্ঘ পাঁচ বছর তদন্তের পর জন্মসনদ ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্সে ভুয়া সিল দেয়ার প্রমাণ মিলেছে। যেসব বাংলাদেশি সংশ্লিষ্ট কাজের সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

তিনি জানান, প্রায় ২ হাজার ভুয়া কাগজপত্র এবং এবং ৮০০ অর্থের বিনিময়ে দ্রুত পাসপোর্ট নেওয়ার প্রমাণ পেয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বাংলাদেশিদের এ নাগরিকত্বের ভুয়া কাগজপত্রের ব্যাপারে একটি মামলা করেন, যার মামলা নং ৪৩৮৯৮।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: