শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

ইউক্রেন বিষয়ক সেমিনারের আয়োজন করলো ইউরোপিয়ান সংসদ



ভূঁইয়া এন জামান:: ইউক্রেনের সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সেমিনারের আয়োজন করলো ইউরোপিয়ান সংসদ। এতে সহযোগী হিসেবে ছিল ইউরোপিয়ান সাংবাদিক ইউনিয়ন (AEJ )

সেমিনারে ইউরোপীয় কমিশন ইউক্রেন ও মোল্দোভার ইইউ সদস্য পদ প্রাপ্তির প্রত্যাশিত সবুজ সংকেত প্রাপ্তির নিশ্চয়তা প্রদান করেন সাংসদ । ইউক্রেন যুদ্ধ ইউরোপের জন্য কি ধরণের পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তা নিয়ে ব্রাসেলসে AEJ-এর দিনব্যাপী প্রেস সেমিনারে আয়োজন।এতে ইউরোপের ভবিষ্যত সম্পর্ক, এবং সংবাদ মাধ্যমের উপর সমস্ত চাপ সত্ত্বেও মুক্ত মিডিয়ার জন্য বিষয়ে আলোচনা হয়।

দিনের শুরুতে মুক্ত গণমাধ্যম ও ইউরোপ`এই বিষয়ক আলোচনার সূত্রপাত করেন আইজে সভাপতি সাইয়া। এতে প্যানেল বক্তা হিসেবে ছিলেন অটমার কারাস , রাফায়েল ডা মার্টে ,অটমার লোহদনস্কি ,

দ্বিতীয় পর্বে আলোচনার বিষয় ছিলো ইউরোপের মুক্ত গণমাধ্যম, জীবিত অথবা মৃত এতে প্যানেল বক্তা হিসেবে ছিলেন পিতার জোকস , এডওয়ার্ড স্টিন এবং উইলিয়াম হর্সলে, এতে মডারেটরের দায়িত্ত্ব পালন করেন স্টেলিওস কৌলোগ্লো।

তৃতীয় পর্বের আলোচনার বিষয় ছিলো ইউক্রেন এবং ইইউ প্রতিরক্ষা, ইউরোপ কি সময়মত কার্যকরভাবে কাজ করেছে? কেন ২০১৪ সালে না (ক্রিমিয়ার সংযুক্তি)। কেন নয় ২০০৮ সালের জর্জিয়া?`।

চতুর্থ পর্বের আলোচনার বিষয় ছিলো `মিডিয়া ম্যানিপুলেশন, ডিসইনফরমেশন, ট্রল- জাল খবর। সোশ্যাল মিডিয়ার ম্যানিপুলেশন এবং ট্রলের ব্যবহার। সাইবার যুদ্ধএবং এটা সম্পর্কে কি করতে হবে? রাশিয়া আজ নিষিদ্ধ করা কি ঠিক ছিল?`এতে আলোচক ছিলেন ড্যানিয়েল ফ্রেন্ড,
পিটার জুকস এবং হারউইগ হোলার। মডারেটর হিসেবে ছিলেন সিসিলিয়া সুন্ডবার্গ।

মধ্যে বিরতির পর পর আলোচনার বিষয় ছিল `ইউরোপ এবং ইউক্রেনের ভবিষ্যত নিয়ে বিতর্ক ইইউতে যোগদানের আকাঙ্খা – ইউক্রেনের জন্য ইইউর সদস্য পদ কতটা গুরুত্বপূর্ণ এবং কত দ্রুত এটি অর্জন করা যায়? ইউক্রেনের যুদ্ধ একটি নতুন “ইউরোপীয় চেতনা” বা উৎসাহিত করেছে
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ -পরবর্তী কিছু আশাবাদ এবং সৃজনশীলতা পুনরুদ্ধার করেছেন? পুতিনের যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া থেকে আমরা কি শিখব? শক্তি নীতি এবং ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের পরিণতি। এতে বক্তা হিসেবে ছিলেন ইভান স্টেফানেক এমইপি (ইপিপি, এসকে), আর্নল্ডাস প্রানকেভিসিউস, রাষ্ট্রদূত, স্থায়ী প্রতিনিধি লিথুয়ানিয়া, রোল্যান্ড ফ্রুডেনস্টাইন – গ্লোবসেকের ভাইস-প্রেসিডেন্ট এবং প্রধান। আনা ইয়াভোরস্কা – ইউক্রেনীয় বিশ্বের রাজনৈতিক বিশ্লেষক। এতে মডারেটর হিসেবে ছিলেন মডারেটর: উইলিয়াম হর্সলে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: