বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৭ জুলাই খালেদার মুক্তি দাবিতে জাতিসংঘের সামনে বিক্ষোভ  » «   মৌসুমি বায়ু দুর্বল, বর্ষার বর্ষণ নেই  » «   সিলেটে দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু  » «   হরিণাকুণ্ডুতে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সদস্য নিহত  » «   পুলিশের সোর্স মামুন মাদক ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে নিয়ে উধাও  » «   ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরি, সালিসে জরিমানার টাকা ভাগাভাগি!  » «   আইনমন্ত্রীর বাসায় প্রধানমন্ত্রী  » «   ‘এদেরকে নিয়েই মান্না সাহেব দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করিবেন’  » «   রাশিয়ায় বিশ্বকাপ দেখতে গিয়ে পুলিশের জালে বাংলাদেশী যুবক  » «   বিদেশ ও জেল থেকে আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ করছে শীর্ষ সন্ত্রাসীরা  » «   বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত মনোনীত রবার্ট মিলার  » «   বেবী নাজনীন অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি  » «   কোটা আন্দোলন: ছাত্রলীগের হুমকিতে ক্যাম্পাস ছাড়া চবি শিক্ষক  » «   ভেবেই ক্লাব বদল করেছেন রোনালদো  » «   ভারতে নিষিদ্ধ, অন্য দেশে পুরস্কৃত যেসব ছবি  » «  



নিউজ ডেস্ক::ফাকা রেস্টুরেন্টে প্রেম করতে গিয়ে বেরসিক জনতার হাতে ধরা পড়া ঝালকাঠির নলছিটি থানার কম্পিউটার অপারেটর কনস্টেবল নাজমুল হাসান সুজন বিয়ে করতে চলেছেন। কনে কিন্তু সেই মেয়েটিই।

সোমবার (২ এপ্রিল) এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চি করেছেন নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল হালিম তালুকদার।

তিনি বলেন, তাদের ব্যাপারে স্থানীয়দের অভিযোগ সত্য নয়। ঘটনার আগে থেকেই ওই পরিবারের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে কথা বার্তা চলছিলো। সৌজন্যতার খাতিরে সেদিন তারা রেস্টেুরেন্টে কফি খেতে গিয়েছিলেন। সেখানে আরও অনেকেই ছিল বলে দাবি করেন তিনি।

তবে স্থানীয়রা জানায়, এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়ের (১৬) সঙ্গে বছর খানেক আগে নাজমুল হাসানের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার দুপুরে প্রেমিকার সঙ্গে ডেটিং করতে অপসোরা ফুড গার্ডেন নামে একটি রেস্টুরেন্টে যান নাজমুল। আর তা টের পেয়ে যায় স্থানীয়রা।

ওই সময়ে রেস্টুরেন্টে লোকজনের আসা-যাওয়া না দেখে সন্দেহজনক মনে হয় তাদের কাছে। অবশেষে দু’জনকে অনেকটা ‘আপত্তিকর অবস্থায়’ ধরে ফেলেন তারা। খবর পেয়ে নলছিটি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজান ঘটনাস্থলে পৌঁছে কনস্টেবল নাজমুলকে থানায় নিয়ে যান এবং মেয়েটিকে বাসায় পাঠিয়ে দেন।

ধরা পড়ার পর মেয়েটি জানান, নাজমুল নামের ওই পুলিশ সদস্যের সঙ্গে তার কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। বরং নামজুল তাকে বিয়ে করার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দিয়েছেন। ঘটনার দিন বাসা থেকে বের হতে দেখে নাজমুল তার পিছু নিয়ে ওই রেস্টুরেন্টে আসেন।

তবে ঘটনার দিনই ওই মেয়েকে বিয়ের করতে চান বলে জানিয়েছিলেন পুলিশ কনস্টেবল নাজমুল। তিনি বলেন, মেয়েটিকে তিনি বিয়ে করতে চান। কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা বলার জন্য তাকে ওই রেস্টুরেন্টে ডেকে আনা হয়েছিল।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: