মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অগ্নিঝুঁকিতে ঢাকার ৪১৬ হাসপাতাল-ক্লিনিক  » «   ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবেন অস্ট্রিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ফেসবুক ‘ডিজিটাল গ্যাংস্টার’: ব্রিটিশ পার্লামেন্ট  » «   মানহানির মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর  » «   পাকিস্তান থেকে ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরলেন সৌদি যুবরাজ  » «   দুই বছরের মধ্যে বিলুপ্ত হবে বিএনপি!  » «   মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ, প্রতিকী আত্মহুতি  » «   আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে আজ শেষ হল বিশ্ব ইজতেমা  » «   আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্সের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক  » «   ট্রাম্পের জরুরি অবস্থা ঘোষণার বিরুদ্ধে ১৬ অঙ্গরাজ্যের মামলা  » «   মেডিকেলের ডাস্টবিনে শিশুসহ ২৬ মানবদেহের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ  » «   উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপ থেকে ইভিএম: ইসি সচিব  » «   হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি হিজড়াদের  » «   সব বাধা উপেক্ষা করে গণশুনানি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   অভিজিৎ হত্যা: অব্যাহতি পাচ্ছেন সাতজন, আসামি ছয়  » «  

৬ বছর পর ধরা পড়লেন স্ত্রীর কাছে!



নিউজ ডেস্ক::বিয়ে করেছেন প্রায় ৬ বছর আগে। বেশ ভালোই যাচ্ছিল দু’জনের সংসার জীবন। কিন্তু বিয়ের এত বছর পরে এসে স্বামীর আসল ধর্মীয় পরিচয় জানতে পারেন স্ত্রী। ব্যস, তখন থেকেই শুরু হয় সমস্যা।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের মেরঠের এক নারী দাবি করেন, ৬ বছর সংসার করার পর তিনি বুঝতে পেরেছেন, তার স্বামী একজন মুসলিম। এখন তাকেও ধর্মান্তরের চাপ দিচ্ছেন তার স্বামী। অথচ হিন্দু পরিচয় দিয়ে তাকে বিয়ে করেছিলেন তিনি।

জানা গেছে, গত শনিবার বজরং দলের লোকজনকে নিয়ে মেরঠের পুলিশ সুপারের কাছে হাজির হন ওই নারী।

ওই নারী অভিযোগ, ‘ইসলামের নানা রীতি আমাকে দিয়ে জোর করে করানো হত। কিন্তু আমি ধর্ম বদল করতে চাই না।’

তাই সু-বিচারের আর্জি জানিয়েছেন ওই নারী। ইতোমধ্যে এ ঘটনার তদন্তে নেমে পড়েছে পুলিশ।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমকে ওই নারী বলেছেন, ‘আমার স্বামী নিজেকে হিন্দু পরিচয় দিয়ে বিবাহ করেছিলেন তাকে। শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার পর বুঝতে পারি, আমার স্বামী মুসলিম। তিনি আমাকে জোর করে ধর্মান্তরের চেষ্টা করেছেন। এমনকি ইসলামি রীতি মেনে পুনর্বিবাহের চাপও দিয়েছে স্বামীর পরিবার।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: