শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

৫৫ বছরের শিক্ষিকার পিছু ধাওয়া করায় ৬২ বছরের বৃদ্ধের কারাদণ্ড!



নিউজ ডেস্ক:: মেয়ের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এ যুগেও অনেক মা-বাবা তাদের মেয়েকে রাস্তায় একা ছাড়েন না। স্কুল, কলেজ এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে কোনো সমস্যা যাতে না হয় সেজন্য অনেক মা-বাবা এখনও তাদের মেয়েদের সাথে সব যায়গায় যেতে দেখা যায়। তবে ৫৫ বছরের কোনো শিক্ষিকার পেছনে যদি ৬২ বছরের কোনো বৃদ্ধ লাগে তখন আপনি কী করবেন।
সম্প্রতি ভারতের মুম্বাইয়ে এমনই এক অভিযোগ উঠেছে। ৫৫ বছর বয়সের এক শিক্ষিকার পেছনে ৬২ বছরের এক বৃদ্ধ ২ বছর যাবত পিছু ধাওয়া করেছে। এ ঘটনায় ওই ৬২ বছরের বৃদ্ধকে দোষী সাব্যস্ত করে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। যা ওই নারী পাবে বলে আদালত জানায়।
ভারতীয় দণ্ডবিধিতে ২০১৩ সালে পিছু ধাওয়াকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করা হয়। মূলত নির্ভয়ায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার পর এমন সিদ্ধান্তে আসে আদালত।
শিক্ষিকার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ৬২ বছরের বৃদ্ধকে দোষী সাব্যস্ত করে ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত। সাজা প্রাপ্ত ব্যক্তির নাম ইস্তেখার আনসারি। তিনি একজন ব্যবসায়ী।
ওই শিক্ষিকা অভিযোগ করেছেন, তিনি একটি স্কুলে কাজ করতেন ২০১৫ সালে। সেখানে তিনি ট্রেনে করে যেতেন। ট্রেন থেকে নেমে কিছুটা রাস্তা হেঁটে যেতে হতো। আর হেঁটে স্কুলে যাওয়ার সময় প্রতিদিন ওই বৃদ্ধ তার পিছু ধাওয়া করত। আর তাতে তিনি প্রচুর বিব্রত বোধ করতেন।
এদিকে ওই ব্যবসায়ী বৃদ্ধ দাবি করেছেন, ব্যবসার কাজে ওই একই রাস্তার একটি দোকানে প্রায়ই যেতেন তিনি। াকন্তু এর মানে এই নয় যে ওই নারীকে সে পিছু ধাওয়া করত।
কিন্তু আদালত তার কথা শোনেননি। নারীর পক্ষেই রায় দেয় আদালত। তবে এ ধরনের অভিযোগে সর্বোচ্চ ৩ বছরের কারাদণ্ড হওয়ার কথা থাকলেও অভিযুক্ত ব্যক্তির বয়সের দিকে লক্ষ্য করে তাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয় আদালত।
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: