মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পত্নীতলায় বিজয় দিবস আন্ত:ইউনিয়ন ভলিবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন  » «   পত্নীতলার প্রিয় মুখ বিএফডিসি, এর তরুন কমেডিয়ান ইমরান হাসোর আজ জন্মদিন  » «   পত্নীতলায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   রাজশাহীতে ৩ সাংবাদিককে পেটাল ছাত্রলীগ  » «   খালেদার দুর্নীতি নিয়ে ইনুর ওপেন চ্যালেঞ্জ  » «   ফেসবুকে আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে নগ্ন ভিডিও-ছবি  » «   অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি ১২৮ কর্মকর্তার  » «   প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটি : সব আসামির জামিন  » «   ভরিতে স্বর্ণের দাম কমলো ১২৮২ টাকা  » «   ১৪ ও ১৬ ডিসেম্বর উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কর্মসূচি  » «   এপির অনুসন্ধান: ধর্ষণ থেকে রেহাই মেলেনি ৯ বছরের রোহিঙ্গা শিশুরও  » «   সীতাকুণ্ডে বিরল প্রজাতির পেঁচা ধরা পড়ল  » «   ‘ভয় পাওয়ার কিছু নেই’  » «   হাইকোর্টের রুল বৈবাহিক অবস্থা লিখতে বাধ্য করা কেন অবৈধ নয়  » «   অবশেষে ফাইনালে রংপুর  » «  

৫৫ বছরের শিক্ষিকার পিছু ধাওয়া করায় ৬২ বছরের বৃদ্ধের কারাদণ্ড!



নিউজ ডেস্ক:: মেয়ের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এ যুগেও অনেক মা-বাবা তাদের মেয়েকে রাস্তায় একা ছাড়েন না। স্কুল, কলেজ এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে কোনো সমস্যা যাতে না হয় সেজন্য অনেক মা-বাবা এখনও তাদের মেয়েদের সাথে সব যায়গায় যেতে দেখা যায়। তবে ৫৫ বছরের কোনো শিক্ষিকার পেছনে যদি ৬২ বছরের কোনো বৃদ্ধ লাগে তখন আপনি কী করবেন।
সম্প্রতি ভারতের মুম্বাইয়ে এমনই এক অভিযোগ উঠেছে। ৫৫ বছর বয়সের এক শিক্ষিকার পেছনে ৬২ বছরের এক বৃদ্ধ ২ বছর যাবত পিছু ধাওয়া করেছে। এ ঘটনায় ওই ৬২ বছরের বৃদ্ধকে দোষী সাব্যস্ত করে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। যা ওই নারী পাবে বলে আদালত জানায়।
ভারতীয় দণ্ডবিধিতে ২০১৩ সালে পিছু ধাওয়াকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে উল্লেখ করা হয়। মূলত নির্ভয়ায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার পর এমন সিদ্ধান্তে আসে আদালত।
শিক্ষিকার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ৬২ বছরের বৃদ্ধকে দোষী সাব্যস্ত করে ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত। সাজা প্রাপ্ত ব্যক্তির নাম ইস্তেখার আনসারি। তিনি একজন ব্যবসায়ী।
ওই শিক্ষিকা অভিযোগ করেছেন, তিনি একটি স্কুলে কাজ করতেন ২০১৫ সালে। সেখানে তিনি ট্রেনে করে যেতেন। ট্রেন থেকে নেমে কিছুটা রাস্তা হেঁটে যেতে হতো। আর হেঁটে স্কুলে যাওয়ার সময় প্রতিদিন ওই বৃদ্ধ তার পিছু ধাওয়া করত। আর তাতে তিনি প্রচুর বিব্রত বোধ করতেন।
এদিকে ওই ব্যবসায়ী বৃদ্ধ দাবি করেছেন, ব্যবসার কাজে ওই একই রাস্তার একটি দোকানে প্রায়ই যেতেন তিনি। াকন্তু এর মানে এই নয় যে ওই নারীকে সে পিছু ধাওয়া করত।
কিন্তু আদালত তার কথা শোনেননি। নারীর পক্ষেই রায় দেয় আদালত। তবে এ ধরনের অভিযোগে সর্বোচ্চ ৩ বছরের কারাদণ্ড হওয়ার কথা থাকলেও অভিযুক্ত ব্যক্তির বয়সের দিকে লক্ষ্য করে তাকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয় আদালত।
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: