বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ: মেয়র আরিফ



নিউজ ডেস্ক:: পবিত্র ঈদ-উল-আযহায় কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘন্টার মধ্যে পরিষ্কার করার ঘোষণা দিয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এ লক্ষ্যে সিসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা শাখার সকল কর্মকর্তা এবং পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের সাথে বৈঠকও করেছেন মেয়র।

সিসিকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যেখানে-সেখানে কোরবানি না দিয়ে নির্ধারিত স্থানে কোরবানি দেওয়া হলে বর্জ্য অপসারণ দ্রুত করা সম্ভব হবে। জানা গেছে, সিলেট সিটি করপোরেশন এলাকায় এবার ৩০টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে কোরবানির জন্য।এসব নির্ধারিত স্থানেই পশু কোরবানি দিতে নগরবাসীর প্রতি সিসিক আহবান জানিয়েছে।

এ বিষয়ে সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘গত বছরের মতো এবারও আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ করবো ইন শা আল্লাহ।

তিনি আরো বলেন, ‘এ বছর সিটি কর্পোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে ৩০টি স্থানে পশু কোরবানির জন্য নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে প্যান্ডেল, পানিসহ কোরবানির যাবতীয় ব্যবস্থা থাকবে। তারপরও যদি নির্ধারিত স্থানে কোনও কারণে কোরবানি দেয়া সম্ভব না হয়, তাহলে যেখানে কোরবানি করবেন সেখানে পানি কিংবা রক্ত যাতে ছড়িয়ে না পরে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

এদিকে, কোরবানির কোনো বর্জ্য ড্রেন বা নালায় না ফেলতে অনুরোধ জানিয়েছেন মেয়র আরিফ। তিনি বলেছেন, ড্রেন বা নালায় বর্জ্য ফেলা হলে তা পানি নিষ্কাশনে বাধা হয়ে দাঁড়াবে। তাছাড়া দুর্গন্ধও ছড়াবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: