শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে স্বামী-স্ত্রী থাকছেন না শাকিব-অপু



বিনোদন ডেস্ক:: অবশেষে শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের ডিভোর্স কার্যকর হতে যাচ্ছে। শাকিব খান অপু বিশ্বাসকে তালাকের নোটিস পাঠিয়ে ছিলেন গেল বছরের ২২ নভেম্বর। আইন অনুযায়ী সেটা কার্যকর হতে সময় লাগে ৯০ দিন অর্থাৎ ৩ মাস। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি অপুকে পাঠানো শাকিবের তালাক নোটিশের ৯০ দিন পূর্ণ হচ্ছে। শর্ত অনুযায়ি ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে স্বামী-স্ত্রী থাকছেন না শাকিব-অপু।

দ্বিতীয় দফায় শাকিব-অপুকে ১২ ফেব্রুয়ারি ফের তলব করা হয় উত্তর সিটি করপোরেশনের মহাখালিস্থ ৩ নম্বর আঞ্চলিক অফিসে। কিন্তু শাকিব সিডনি থাকার কারণে আগামীকাল হাজির হবেন না। জানান, অপুর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক অব্যাহত রাখার ব্যাপারে আগ্রহী নন। একটা সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য উভয় পক্ষের মধ্যে শ্রদ্ধা থাকতে হবে। আমি মনে করি, তা এখন আর অবশিষ্ট নেই।

ডিভোর্স নোটিশ পাঠানোর পর শাকিব-অপুর দাম্পত্য জীবনে মীমাংসার জন্য ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে গেল ১৫ জানুয়ারি দুজনেই তলব করা হয়। সেখানে অপু উপস্থিত হলেও ছিলেন না শাকিব খান। তিনি তখন নোলক ছবির শুটিংয়ে হায়দ্রাবাদ ছিলেন।

শাকিব জানান, তালাক কার্যকর হওয়ার পর অপু বিশ্বাসকে বিয়ের দেনমোহর বাবদ সাত লাখ টাকা পরিশোধ করবেন। ছেলের খরচ বাবদ এখন প্রতি মাসে অপুকে এক লাখ দিচ্ছেন। ছেলের সমস্ত দায়িত্ব নিবেন বলেও জানিয়েছেন শাকিব।

এদিকে অপু বিশ্বাস বলেন,‘ জয়কে মানুষের মতো মানুষ করতে আমাকে অনেক লড়াই করতে হবে। আমি চাই আমার ছেলে আব্রাহাম জয় দেশের আদর্শ একজন নাগরিক হিসেবে বেড়ে উঠুক। ভবিষ্যতে আব্রাম আমার পরিচয়ে নয়, আমিই ওর পরিচয়ে বাঁচতে চাই।’

শাকিব-অপুর বিয়ে হয় ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। কিন্তু ৯ বছর বিয়ের খবর গোপন রাখেন এই তারকা জুটি। গেল বছরের ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ছয় মাস বয়সী ছেলে আব্রামকে সঙ্গে নিয়ে হাজির হন অপু। বিয়ের খবর প্রকাশের আট মাসের মাথায় বিবাহ বিচ্ছেদে গেলেন তারা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: