রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লাগামহীনভাবে বাড়ছে দ্রব্যমূল্য: রমজানপূর্ব মজুদদারিতে কারসাজি  » «   সন্ত্রাস ও হিংসা মোকাবেলায় একসঙ্গে কাজ করতে পাকিস্তানকে আহ্বান মোদির  » «   সংসদে লুকিয়ে চকলেট খেয়ে ক্ষমা চাইলেন ট্রুডো!  » «   নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে অন্যরকম সম্মান দেখালো আরব আমিরাত  » «   ‘ইসলাম গ্রহণ করবেন ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট’  » «   শাহজালাল বিমানবন্দরে ময়লার ঝুড়ি থেকে ১৬ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  » «   ভারতে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রথম তালিকা ঘোষণা করলো বিজেপি  » «   সিলেটে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেল সিলসিলার ম্যানেজারের  » «   নিজের চেয়ার ছেড়ে জহিরুলের পাশে এসে দাঁড়ালেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সিলেটে নির্মাণ হতে যাচ্ছে স্মৃতিসৌধ,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডিও লেটার  » «   সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের ১০ ধাপ অবনতি  » «   জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু  » «   আইডিয়া’র ২৫ বছর পূর্তি উৎসবে র‍্যালি, আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান  » «   উন্নয়ন করতে গিয়ে জীবন ও জীবিকার যেন ক্ষতি না হয় : প্রধানমন্ত্রী  » «   আজ দিন রাত সমান, আকাশে থাকবে সুপারমুন  » «  

২০৩০ সালে ভারতে ঘটবে দুই অদ্ভূত ঘটনা!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: আগামী ১২ বছর পর ভারতে দুটি অদ্ভূত ঘটনা ঘটবে। ভবিষ্যত ঘুরে এসে এমন দাবি করেছেন স্বঘোষিত ‘টাইম-ট্রাভেলার’ নোয়া। একটি অদ্ভুত অনলাইন ভিডিওতে এ দাবি করেন তিনি।

তার দাবি, তিনি ২০৩০ সাল থেকে ঘুরে এসেছেন টাইম মেশিনে চেপে। তার হাতে রয়েছে একটি চিপ, সেই চিপের সাহায্যেই তিনি দেখে এসেছেন ভারতের ভবিষ্যৎ।আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘এক্সপ্রেস’ এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী নোয়ার দাবি, আর ১২ বছরের মধ্যে ভারত একটি চিপ আবিষ্কার করবে। সেই চিপ শরীরের মধ্যে লাগিয়ে দেয়া যাবে। এর মাধ্যমে মস্তিষ্কের সঙ্গে ইন্টারনেটের সংযোগ থাকবে।

এমন মানুষদের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন বলেও দাবি করেছেন নোয়া। তিনি বলেন, “আমি ওদের সঙ্গে কথা বলেছি। সেটা প্রায় ভগবানের সঙ্গে কথা বলার মতো।”

যুক্তরাষ্ট্রের চেয়েও প্রযুক্তিগত দিক থেকে নাকি এগিয়ে থাকবে ভারত। এমনই দাবি নোয়ার। তার নিজের হাতের মধ্যেও একটি চিপ আছে বলে দাবি করেছেন এই স্বঘোষিত টাইম ট্রাভেলার।

তবে তার দাবি, ২০৩০ সালে যেটা ভারতের কাছে সবচেয়ে বড় সমস্যার হবে, তা হল ‘জনসংখ্যা’। তবে ভারত বিনা পয়সায় লোকজনকে মঙ্গলগ্রহে পাঠিয়ে সেই সমস্যার সমাধান করবে বলেও জানিয়ে দিচ্ছেন নোয়া।

নোয়ার এই দাবিকে অনেকে স্বাগত জানালেও, তার ‘ভবিষ্যদ্বাণী’কে স্রেফ গল্প বলে উড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। সময় ভ্রমণ বিষয়টি এখনও কল্পবিজ্ঞান ছবি বা কাহিনিতেই সীমাবদ্ধ। বিজ্ঞানীরা নানা সময়ে নানা কথা বলেছেন এই নিয়ে। তাদের মধ্যে রয়েছেন আইনস্টাইনের মত বিশ্ববিশ্রুত বিজ্ঞানীও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিষয়টি দানা বাঁধেনি। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে নোয়ার এই আজব দাবিকে মেনে নেওয়া যে কঠিন, তা বলাই বাহুল্য।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: