শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

২০৩০ সালে ভারতে ঘটবে দুই অদ্ভূত ঘটনা!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: আগামী ১২ বছর পর ভারতে দুটি অদ্ভূত ঘটনা ঘটবে। ভবিষ্যত ঘুরে এসে এমন দাবি করেছেন স্বঘোষিত ‘টাইম-ট্রাভেলার’ নোয়া। একটি অদ্ভুত অনলাইন ভিডিওতে এ দাবি করেন তিনি।

তার দাবি, তিনি ২০৩০ সাল থেকে ঘুরে এসেছেন টাইম মেশিনে চেপে। তার হাতে রয়েছে একটি চিপ, সেই চিপের সাহায্যেই তিনি দেখে এসেছেন ভারতের ভবিষ্যৎ।আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘এক্সপ্রেস’ এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী নোয়ার দাবি, আর ১২ বছরের মধ্যে ভারত একটি চিপ আবিষ্কার করবে। সেই চিপ শরীরের মধ্যে লাগিয়ে দেয়া যাবে। এর মাধ্যমে মস্তিষ্কের সঙ্গে ইন্টারনেটের সংযোগ থাকবে।

এমন মানুষদের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন বলেও দাবি করেছেন নোয়া। তিনি বলেন, “আমি ওদের সঙ্গে কথা বলেছি। সেটা প্রায় ভগবানের সঙ্গে কথা বলার মতো।”

যুক্তরাষ্ট্রের চেয়েও প্রযুক্তিগত দিক থেকে নাকি এগিয়ে থাকবে ভারত। এমনই দাবি নোয়ার। তার নিজের হাতের মধ্যেও একটি চিপ আছে বলে দাবি করেছেন এই স্বঘোষিত টাইম ট্রাভেলার।

তবে তার দাবি, ২০৩০ সালে যেটা ভারতের কাছে সবচেয়ে বড় সমস্যার হবে, তা হল ‘জনসংখ্যা’। তবে ভারত বিনা পয়সায় লোকজনকে মঙ্গলগ্রহে পাঠিয়ে সেই সমস্যার সমাধান করবে বলেও জানিয়ে দিচ্ছেন নোয়া।

নোয়ার এই দাবিকে অনেকে স্বাগত জানালেও, তার ‘ভবিষ্যদ্বাণী’কে স্রেফ গল্প বলে উড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। সময় ভ্রমণ বিষয়টি এখনও কল্পবিজ্ঞান ছবি বা কাহিনিতেই সীমাবদ্ধ। বিজ্ঞানীরা নানা সময়ে নানা কথা বলেছেন এই নিয়ে। তাদের মধ্যে রয়েছেন আইনস্টাইনের মত বিশ্ববিশ্রুত বিজ্ঞানীও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিষয়টি দানা বাঁধেনি। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে নোয়ার এই আজব দাবিকে মেনে নেওয়া যে কঠিন, তা বলাই বাহুল্য।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: