রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নেতাদের শাসালেন শেখ হাসিনা  » «   যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «  

২০২৩ পর্যন্ত কোনো বিশ্বকাপে দেখা যাবে না ভারতকে!



স্পোর্টস ডেস্ক:: এসজিএমে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সম্পর্কিত কি সিদ্ধান্ত নেবে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) তা জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে সাত মে পর্যন্ত। তবে তার আগে বেশ বড়সড় হুশিয়ারি পেলো ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে অংশ না নিলে আইনানুযায়ী ২০২৩ পর্যন্ত ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কোনো ইভেন্টে তারা অংশ নিতে পারবে না।

আইসিসির বেধে দেওয়া নির্দিষ্ট তারিখে দল ঘোষণা করেনি ভারত। আর্থিক মডেল মেনে নেওয়ার জন্য এটি আইসিসির উপরে বিসিসিআইয়ের এক প্রকার চাপ। তবে এবার আইসিসিও জানিয়ে দিল চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বর্জনের সিদ্ধান্ত নিলে দীর্ঘ সময় আইসিসির কোন টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারবে না ভারত।

ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর সূত্র মতে, বিসিসিআইয়ের দুই সাবেক সভাপতি এন শ্রীনিবাসন ও অনুরাগ ঠাকুর গোপনে টেলিকনফারেন্স করে আইসিসির কাছে প্রতিবাদলিপি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে বিষয়টি ফাঁশ হয়ে যাওয়ায় সুপ্রিম কোর্ট থেকে নিয়োগকৃত বিসিসিআই প্রধান নির্বাহি বিনোদ রায় তাদের সতর্ক করে দিয়েছেন। পাশাপাশি আরো জানিয়েছেন, এধরনের কোনো সিদ্ধান্ত নিলে আইনগতভাবে তাদের প্রতিহত করা হবে।

ক্রিকইনফোর সূত্র মতে, মেম্বার্স পার্টনারশিপ অ্যাগ্রিমেন্ট (এমপিএ) বাতিল করে যদি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি বয়কট করে তবে ২০২৩ সাল পর্যন্ত আইসিসির সবধরনের ইভেন্টে অংশ নেওয়ার যোগ্যতা হারাবে ভারত। এ সময় দুটি বিশ্বকাপ (২০১৯, ২০২৩), দুটি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি (২০১৭, ২০২১), দুটি নারী বিশ্বকাপ (২০১৭, ২০২১), তিনটি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (২০১৮, ২০২০, ২০২২), ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, তিনটি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ও আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে (২০২১) অংশ নিতে পারবে না ভারত।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: