শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চমক থাকছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে  » «   দুই-তিন দিনের মধ্যে ইসিতে যাবে বিএনপি  » «   কাদের সিদ্দিকী রাজাকার, বদমাইশ : মির্জা আজম  » «   নির্বাচনের ৭ দিন আগে ব্যালট পৌঁছে যাবে: ইসি সচিব  » «   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চান ড. কামাল  » «   যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড কানাডায় বোমা হামলার হুমকি  » «   ক্ষমা চাইলেন ড. কামাল  » «   মন্দিরের প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৮১  » «   ২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «  

২০১৭-১৮ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬%



নিউজ ডেস্ক:: বিদায়ী ২০১৭-১৮ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপির প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ৭.৮৬ শতাংশ। যা প্রাথমিক হিসেবে ছিলো ৭.৬৫ শতাংশ। মঙ্গলবার সকালে রেকর্ড প্রবৃদ্ধির এই তথ্য জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সামনে তুলে ধরা হয়।

গত অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপির প্রবৃদ্ধির যে রেকর্ড হবে, তা গত ৬ সেপ্টেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। সেটি যে ৮ শতাংশের কাছাকাছি যাবে, সেই আভাসও দিয়ে রেখেছিলেন। শেষ পর্যন্ত পরিকল্পনামন্ত্রীর আভাসই সত্যি হলো।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্য বলছে, বিদায়ী অর্থবছরে দেশে জিডিপির প্রবৃদ্ধির রেকর্ড হয়েছে। ওই অর্থবছর প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ৭.৮৬ শতাংশ।

যদিও অর্থবছরের ৯ মাসের (জুলাই-এপ্রিল) তথ্য-উপাত্ত দিয়ে বিবিএস জানিয়েছিল, গত অর্থবছর প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৬৫ শতাংশ। অবশ্য ওই তথ্য ছিল সাময়িক প্রাক্কলন। চূড়ান্ত তথ্যে দেখা গেল, সাময়িকের চেয়ে প্রবৃদ্ধি ০.২১ শতাংশ বেড়ে ৭.৮৬ শতাংশ হয়েছে।

বিবিএসের তথ্য অনুযায়ী,বিদায়ী অর্থবছরে সরকার বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছিল ৭.৪ শতাংশ।সাময়িক প্রাক্কলনে তা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি, অর্থাৎ ৭.৬৫ শতাংশ অর্জিত হয়। এখন চূড়ান্ত তথ্য বলছে, ৭.৮৬ শতাংশ। অর্থাৎ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ০.৪৬ শতাংশ বেশি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: