মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শ্রীমঙ্গলে থামছে না অসাধু ব্যবসায়ীদের অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, নিশ্চুপ প্রশাসন!  » «   জাজিরা প্রান্তে বসল ১১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ১৬৫০ মিটার  » «   দক্ষিণ সুরমায় ইজতেমার অনুমোদন এখনো মেলেনি  » «   সিলেটের ৯টি উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু  » «   শোকে স্তব্ধ শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১১  » «   জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার  » «   ভারতের মিডিয়া ও বিজেপির প্রতি ক্ষুব্ধ শ্রীলঙ্কার নেটিজেনরা  » «   পড়াশোনা না করলে জীবনের অর্থ সংকীর্ণ হয়ে ওঠে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   এমডিকে ‘ওয়াসার সুপেয় পানির’ শরবত খাওয়াবেন জুরাইনবাসী  » «   হুমকি না থাকলেও সতর্ক আছে বাংলাদেশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   নকল তামাক পণ্য : হুমকিতে জনস্বাস্থ্য, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার  » «   ৬ দিনের সফরে সিলেটে পৌঁছেছেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ  » «   শাহজালাল বিমানবন্দরের টয়লেট থেকে ৪ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  » «   ফেঞ্চুগঞ্জে ঘরে ঢুকে হত্যাচেষ্টা, ছুরিসহ আটক  » «   শ্রীলংকায় বোমা হামলায় সুনামগঞ্জের শিশু জায়ান নিহত  » «  

১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: দুইশ’ বছরের ব্রিটিশ শাসন থেকে ভারতীয় উপমহাদেশের মুক্তি মিলে ১৯৪৭ সালে। ওই বছর ব্রিটেনের কাছে থেকে স্বাধীনতা লাভ করে ভারত ভাগের মাধ্যমে ভারত এবং পাকিস্তান নামে দুটি দেশের জন্ম হয়। তখন থেকে ১৫ আগস্টকে ভারতের স্বাধীনতা দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়।

উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে এবার ৭২তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করছে ভারত। স্বাধীনতা সংগ্রামীদের আত্মত্যাগ ও প্রাণদানের ইতিহাস রয়েছে। সেই ইতিহাসকে জানতে বসলেই যে প্রশ্ন সবার আগে উঠে আসে, তা হলো ভারতের স্বাধীনতা দিবস কেন ১৫ আগস্ট পালন করা হয়? কেন এই দিনটিকে বেছে নেয়া হলো?

ভারতের শেষ ভাইসরয় লর্ড মাউন্টব্যাটেনকে ১৯৪৭ সালের ৩০ জুন ক্ষমতা হস্তান্তরের আদেশ দেয় ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। কিন্তু সেই ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে আগস্ট মাস পর্যন্ত লেগে যায়।

তৎকালীন ভারতীয় রাজনীতিবিদ সি রাজাগোপালাচারি বলেন, যদিও ১৯৪৮ সালের জুন মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করার কোন অর্থ নেই। এই চাপে লর্ড মাউন্টব্যাটেন স্বাধীনতার সময়কে এগিয়ে নিয়ে আসেন ১৯৪৭ সালের আগস্টে।

সময়টা এগিয়ে আনার ক্ষেত্রে মাউন্টব্যাটেনের যুক্তি ছিল তিনি দাঙ্গা বা রক্তপাত চান না। অবশেষে দু’সপ্তাহের মধ্যে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভারতীয় স্বাধীনতা আইন ১৯৪৭ পাস হয়। ওই আইনে ১৫ আগস্টকে ধরা হয় ব্রিটিশ ভারতের শেষ দিন।

ল্যারি কলিন্স ও ডমিনিক লা পিয়েরের লেখা ‘ফ্রিডম অ্যাট মিডনাইটে’ বলা হয়েছে, মাউন্টব্যাটেন নিজেই স্বাধীনতার তারিখ নির্ধারণ করেছিলেন। তবে তাকে এই তারিখের ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে, সেভাবে কোনো সুস্পষ্ট জবাব দেননি।

মাউন্টব্যাটেন বলেছিলেন, আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই তারিখ ঘোষণা করা হবে। তাহলে ১৫ আগস্ট কেন বেছে নিয়েছিলেন তিনি? জবাবে বলেছিলেন, ১৫ আগস্ট বেছে নেয়ার কারণ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সেদিন জাপানের আত্মসমর্পণের দ্বিতীয় বার্ষিকী।

১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হয়। অক্ষশক্তির কাছে আত্মসমর্পণ করে জাপান। ওই বছর জাপানের সম্রাট হিরোহিতো এক ভাষণে মিত্রবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণের কথা জানান। মাউন্টব্যাটেন ছিলেন তখন দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের প্রধান সেনাপতি। তিনি তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিলের সঙ্গে বসে শুনেছিলেন ওই ঘোষণা। সেদিন ছিল ১৫ আগস্ট!

ভারতীয় একটি দৈনিক বলছে, ১৯২৯ সালের দিকে কংগ্রেসের সভাপতি থাকার সময় ‘পূর্ণ স্বরাজে’র ডাক দেন জওহরলাল নেহরু। তখন ২৬ জানুয়ারিকে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে ঠিক করা হয়। ১৯৩০ থেকে ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত কংগ্রেস দিনটিকে স্বাধীনতা দিবস হিসেবে পালন করে। তবে তা ভারতে বর্তমানে প্রজাতন্ত্র দিবস হিসেবে পালিত হয়। ১৯৫০ সালের ওই দিনে স্বাধীন ভারতের প্রথম সংবিধান কার্যকর হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: