রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল, সম্পাদক বাবু  » «   চার দিনের সফরে আজ আমিরাত যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   শ্রীলঙ্কায় মুসলিম ভোটারদের বহনকারী বাসে বন্দুকধারীদের হামলা  » «   আজ পহেলা অগ্রহায়ণ: নানা আয়োজনে চলছে ‘নবান্ন উৎসব’  » «   মোরালেস সমর্থকদের ওপর পুলিশের এলোপাতাড়ি গুলি, নিহত ৫  » «   স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যাত্রীর ফেলে যাওয়া ২০ লাখ টাকা ফেরত দিলেন রিকশাচালক  » «   দেশে ফিরে নির্যাতনের আরও ভয়াবহ তথ্য দিলেন সুমি  » «   বাবরি মসজিদের রায় নিয়ে এবার ক্ষেপেছে শিখরা  » «   নিখোঁজ মেডিকেল শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   এসএসসি ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি, নির্বিকার প্রশাসন  » «   স্টেশন মাস্টারের ভুলে ৮ বগি লাইনচ্যুত, উত্তরবঙ্গে রেল-সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন  » «   বিন লাদেনকে পাকিস্তানের হিরো বললেন পারভেজ মোশাররফ  » «   রোববার প্রাথমিক-ইবতেদায়ী সমাপনী শুরু, পরীক্ষার্থী কমেছে  » «   ধড়পাকড়ে স্বপ্ন এখন দুঃস্বপ্ন, ফিরলেন আরও ২১৫ কর্মী  » «  

হোয়াইটওয়াশের লজ্জায় ডুবলো বাংলাদেশ



স্পোর্টস ডেস্ক:: প্রথম দুই ম্যাচেই সিরিজ হেরে যাওয়ার পর শেষ ম্যাচ থেকে কিছু একটা পাওয়ার আশায় ছিলেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। শেষ ম্যাচেও হেরে হোয়াইটওয়াশের লজ্জায় ডুবলো টাইগাররা। তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচে ১২২ রানের বিশাল ব্যবধানে হারে তামিম-মুশফিকরা। এটি শ্রীলঙ্কার কাছে বাংলাদেশের পঞ্চম ও সবমিলিয়ে ২৫তম হোয়াইটওয়াশ।

লঙ্কানদের ছুড়ে দেওয়া ২৯৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৪ রানেই ওপেনার তামিম ইকবালের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। টানা ৬ ম্যাচে বোল্ড হওয়ার লজ্জার পর এবার তিনি আউট হয়েছেন ক্যাচ তুলে দিয়ে। মাত্র ২ রানেই শেষ হয়েছে তামিমের ইনিংস। এরপর আরেক ওপেনার আনামুল হক বিজয়ও বিদায় নেন মাত্র ১৪ রানের ইনিংস খেলে। দুজনেই লঙ্কান পেসার রাজিথার শিকার।

বাংলাদেশের দুই ওপেনারের দেখিয়ে যাওয়া পথেই হেঁটেছেন মুশফিক (১০), মোহাম্মদ মিথুন (৪) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৯)। তিনজনই শাকানার বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন। এরপর উইকেট বিলিয়ে দেওয়ার মিছিলে যোগ দেন সাব্বির রহমান (৭) ও মিরাজও (৮)। বাকিদের মাঝে একমাত্র ব্যতিক্রম সৌম্য। তার ব্যাট থেকে এসেছে প্রতিরোধ। কিন্তু তা মোটেও যথেষ্ট হয়নি।

৮৬ বলে ৬৯ রানের ইনিংস খেলে ধনঞ্জয়ার হাতে ক্যাচ দিলে শেষ হয় সৌম্য’র প্রতিরোধ। এই ইনিংস খেলার পথে ৫টি বাউন্ডারি ও ১টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন সৌম্য। শেষদিকে ২৭ বলে ৩৯ রানের ইনিংস খেলে পরাজয়ের ব্যবধানটাই শুধু কমাতে সক্ষম হয়েছেন তাইজুল ইসলাম। তার এই ঝড়ো ইনিংসে বাউন্ডারির মার ছিল ৫টি, এছাড়া একটি ছক্কাও হাঁকিয়েছেন। তবে অন্য প্রান্তে অপরাজিত থাকা অবস্থায় দলকে ১৭২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার সাক্ষী হতে হলো তাইজুলকে।

লঙ্কানদের হয়ে বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছেন শানাকা। ২টি করে উইকেট গেছে রাজিথা ও কুমারার দখলে। ১টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন ধনঞ্জয়া ও হাসারাঙ্গা।

এর আগে শুরুতে ফিল্ডিং করতে নেমে ক্যাচ মিস, বাজে লাইন-লেন্থ মিলিয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ম্যাচেও বোলিংয়ে হতাশা ছড়ায় বাংলাদেশ। আর এই সুযোগে ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, কুশল মেন্ডিসরা।

নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। ব্যাট হাতে ৮৭ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেছেন সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক ম্যাথিউস। ফিফটি তুলে নিয়েছেন কুশল মেন্ডিস। ফিফটি ছুঁইছুঁই ইনিংস খেলেছেন লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে (৪৬) ও টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান কুশল পেরেরা (৪২)।

বল হাতে ৯ ওভারে ৫৬ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে সবচেয়ে সফল বোলার সৌম্য। ৩ উইকেট পেয়েছেন শফিউলও। তবে তিনি ১০ ওভারে খরচ করেছেন ৬৮ রান। ১ উইকেট করে গেছে রুবেল ও তাইজুলের ঝুলিতে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ২৯৪/৮ (ফার্নান্দো ৬, করুনারত্নে ৪৬, কুসল পেরেরা ৪২, মেন্ডিস ৫৪, ম্যাথিউস ৮৭, শানাকা ৩০, জয়াসুরিয়া ১৩, হাসারাঙ্গা ১২*, দনাঞ্জয়া ০, রাজিথা ০*; শফিউল ১০-২-৬৮-৩, রুবেল ৯-১-৫৫-১, তাইজুল ১০-১-৩৪-১, মিরাজ ৯-০-৫৯-০, সৌম্য ৯-০-৫৬-৩, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-২২-০)

বাংলাদেশ: ৩৬ ওভারে ১৭২ (এনামুল ১৪, তামিম ২, সৌম্য ৬৯, মুশফিক ১০, মিঠুন ৪, মাহমুদউল্লাহ ৯, সাব্বির ৭, মিরাজ ৮, তাইজুল ৩৯*, শফিউল ১, রুবেল ২; জয়াসুরিয়া ৬-০-৪০-০, রাজিথা ৫-০-১৭-২, দনাঞ্জয়া ১০-০-৪৪-১, শানাকা ৬-০-২৭-৩, হাসারাঙ্গা ৪-১-১৬-১, কুমারা ৫-০-২৬-২)।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: