শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের সুপারিশ কানাডিয়ান দূতের  » «   সালমান খানের সঙ্গে শাকিব খানের তুলনা করলেন পায়েল  » «   বিশ্বকাপ মিশনে নামার আগে মক্কায় পগবা  » «   সিটি নির্বাচনের প্রচারে এমপিরা কি অংশ নিতে পারবেন?  » «   তালিকা অনুযায়ী সবাইকে ধরা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   আমজাদ হোসেনের জার্মানি পতাকা এবার সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার  » «   ভক্তদের প্রশ্নের জবাব দিয়ে কক্সবাজার ছাড়লেন প্রিয়াঙ্কা  » «   জাপানে বন্ধুর ক্লাবই নতুন ঠিকানা ইনিয়েস্তার  » «   মুক্তামনির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   ‘ভারত থেকে এক বালতি পানিও আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী’-রিজভী  » «   চৌদ্দগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত  » «   জবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতার ওপর হামলা  » «   নারীর মন-শরীর নিয়ন্ত্রণ করে পুরুষ আধিপত্য চায়: বিদ্যা  » «   আখাউড়ায় হচ্ছে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট  » «   ২১ ঘণ্টা রোজা রাখছেন ৪ দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান!  » «  

হেডফোন ব্যবহারে যেসব সমস্যা হতে পারে



লাইফস্টাইল ডেস্ক:: প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে বদলে যাচ্ছে আমাদের জীবনধারাও। যোগ হচ্ছে নিত্যনতুন উপকরণ। হাতে হাতে মোবাইল ফোনের সঙ্গে একটি হেডফোনও থাকা চাই যে! চলতি পথে একঘেয়েমি কাটাতে হেডফোনে গান শোনেন অনেকে। কেউ বা অফিসে কাজ করতে করতে, কেউ অবসরে, প্রিয়জনের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে- কোথায় না ব্যবহার হয় হেডফোন! কিন্তু উপকারি এই হেডফোনই হতে পারে আপনার ক্ষতির কারণ।

হেডফোনে একনাগারে গান শুনলে শোনার ক্ষমতা ৪০-৫০ ডেসিবেল কমে যায়। কানের পর্দা কাঁপে। দূরের আওয়াজ শুনতে অসুবিধা হয়।

অনেকেই হেডফোনে গান শোনা কিংবা কথা বলা অবস্থায় রাস্তা পার হন। আর একারণে এক মুহূর্তেই ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

হেডফোনের অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে কানে দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা। কানে ব্যাথা, মাথা ধরার মতো উপসর্গও দেখা দিচ্ছে। বিশেষ করে তরুণ সমাজের একটি বড় অংশ ভুগছে এই সমস্যায়।

হেডফোন যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করুন। যদি ঘণ্টার পর ঘণ্টা কানে ইয়ারফোন লাগিয়ে কাজ করতে হয়, তা হলে সেক্ষেত্রে ৫ মিনিট করে ব্রেক নেওয়া দরকার।

হেডফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে এর কোয়ালিটির দিকে নজর রাখুন। ইয়ারবাড ব্যবহার করা থেকে দূরে থাকুন। পরিবর্তে ইয়ারফোন ব্যবহার করুন। কারণ ইয়ারফোন কানের বাইরে লাগাতে হয়। কিন্তু ইয়ারবাড কানের ফুটোতে ঢুকিয়ে গান শোনার ক্ষেত্রে ভাইব্রেশন অনেক বেশি হয় যা পর্দার ব্যাপক ক্ষতি করে।

হেডফোনে ফুল ভলিউমে গান চালিয়ে না শোনাই ভালো। এতে মানসিক সমস্যার পাশাপাশি হার্টের রোগ এবং ক্যান্সারের প্রবণতা বাড়ে। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কানের নানা রকম জটিল সমস্যাও দেখা দেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: