শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাবলিক পরীক্ষার সব ফি দেবে সরকার  » «   বাচ্চারা সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ইভিএম, দাবি লালুপুত্রের  » «   আগামীকাল প্রাথমিকের প্রথম ধাপের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা  » «   পরাজিত হওয়া মানেই হার নয়: মমতা  » «   কুলাউড়ায় ওজন বাড়াতে চিংড়িতে বিষাক্ত জেলি!  » «   শতবর্ষী বৃদ্ধাকে ধর্ষণ: ‘আমাকে ছেড়ে দাও, আমি রোজা রাখছি’  » «   কিছুটা সময় লাগলেও ইসরাইল-আমেরিকার পতন অনিবার্য: ধর্মীয় নেতা  » «   মেয়াদোত্তীর্ণ সেমাই ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরি: সিলেটে ওয়েল ফুডকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা  » «   একক দল হিসেবেই ম্যাজিক ফিগারে মোদির বিজেপি!  » «   পারিবারিক কলহে সৎ মাকে কুপিয়ে জখম করেছে ছেলে  » «   রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে নিয়োগ দেয়া হবে: অর্থমন্ত্রী  » «   পবিত্র কোরআন কেটে ভেতরে ইয়াবা পাচার, ৩ রোহিঙ্গা আটক  » «   গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একই পরিবারের চার জন নিহত  » «   খালেদার কারামুক্তি, এবারও ‘হ্যান্ডল’ করতে পারেনি বিএনপি!  » «   বালিশ মাসুদের খোলা চিঠি  » «  

হারবাল ওষুধে শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু, পল্লী চিকিৎসক আটক



নিউজ ডেস্ক:: কুষ্টিয়ার মিরপুরে ইউনানি ওষুধ খেয়ে শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মৃতরা হলেন, উপজেলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়নের খাড়ারা এলাকার পলান শেখের ছেলে নুর মহাম্মদ (৫০) ও একই এলাকার নবাব আলীর মেয়ে শামীমা (৯)। একই ঔষুধ খেয়ে নবাব আলীও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানা গেছে। রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানান, নবাব আলীর বাড়ীতে ওই রাতে টেলিভিশন দেখতে যায় নুর মহাম্মদ। এ সময় কাশির জন্য নবাব আলী নবীন ল্যাবরোটরির মেরী গোল্ড নামক ইউনানী সিরাপ খায়। যেটি গত ২ মাস আগে কাশির জন্য নিয়ে এসে রেখেছিলেন। এ সময় নুর মহাম্মদ, নবাব আলী এবং নবাব আলীর মেয়ে শামীমা একই ঔষুধ খায়। এরপরে রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শামীমা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার পূর্বেই মেয়েটি মারা যায়। মেরী গোল্ড নামক ইউনানী সিরাপ খেয়েছিলো সে। এদিকে ঐ একই ঔষুধ খেয়ে মধ্যরাতে নুর মহাম্মদ অসুস্থ হয়ে পড়েন। কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনিও মারা যান। এদিকে মধ্যরাতে অসুস্থ হয়ে হয়ে পড়ে শামিমার পিতা নবাব আলী। তাকে দ্রুত ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

মিরপুর থানার ওসি আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ওই এলাকার পল্লী চিকিৎসক রাজিবকে আটক করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: