শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল সংসদে ফেরত পাঠানোর আহ্বান  » «   কোনো বইকে নিষিদ্ধ করা ঠিক নয় : অর্থমন্ত্রী  » «   সিলেটে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে লাল কার্ড প্রদর্শন ও মানববন্ধন  » «   ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক হবে প্রধানমন্ত্রীর  » «   কাশ্মীর বিদ্রোহী নেতার নামে পাকিস্তানের ডাকটিকিটি প্রকাশ  » «   সংসদ নির্বাচনে হুমকি ‘সাইবার ক্রাইম’, গুজব ঠেকাতে সজাগ পুলিশ  » «   তাঞ্জানিয়ায় ফেরি ডুবি, নিহত বেড়ে ১৩৬  » «   আইনগত অনুমোদন পেলেই সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার: সিইসি  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের কার জন্য কত টাকা গৃহঋণ  » «   গণেশের ছবি দিয়ে বিজ্ঞাপন: হিন্দুদের কাছে ট্রাম্পের দলের দুঃখ প্রকাশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলো কোটা বাতিলের সুপারিশ  » «   রেলের আধুনিকায়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  » «   কেন মুনকে বিশেষ সেই ‘পবিত্র পর্বতে’ নিয়ে গেলেন কিম?  » «   সুখোই কিনলে ভারতকেও নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে!  » «   প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের পথে লন্ডন পৌঁছেছেন  » «  

হামলায় চবি ছাত্রলীগ নেতা আহত : ভর্তিচ্ছুদের মাঝে আতঙ্ক



হামলায় চবি ছাত্রলীগ নেতা আহত : ভর্তিচ্ছুদের মাঝে আতঙ্ক

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তায়েফুল হক তপুকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষ ‘বাংলার মুখ’ গ্রুপের কর্মীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধারের পর তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

শনিবার রাত ৯টা ২০মিনিটের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবদুর রব হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমানও আহত হয়েছেন। এ ঘটনার জেরে ক্যাম্পাসে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মাঝে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, রাতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ‘বাংলার মুখের’ গ্রুপের ১০-১৫ জন কর্মী রামদা ও দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তায়েফুল হক তপুর ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় কাপড় দিয়ে তার মুখ চেপে ধরে হামলাকারীরা। বাকি কর্মীরা তাকে রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। পরে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায় বাংলার মুখের কর্মীরা। তার সাথে থাকা ছাত্রলীগের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমানও আহত হয়েছেন।

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে দু’জনকে চবি মেডিকেল সেন্টারে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হামলাকারী বাংলার মুখের কর্মীরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক দিয়াজ ইরফান এবং নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী।

এদিকে, এ ঘটনার পর ছাত্রলীগের ‘সিক্সটি নাইন’ গ্রুপের কর্মীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২নং গেটে অবস্থান নিয়েছে। এ নিয়ে ক্যাম্পাসে তীব্র উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। ক্যাম্পাসে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মাঝেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী জাগো নিউজকে জানান, ক্যাম্পাসে যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রশাসন সতর্ক আছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: