বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দুই প্রকৌশলীকে পেটালেন আওয়ামী লীগ-ছাত্রলীগ নেতারা  » «   সিলেটে বিদেশী মদসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   রেল লাইন সংস্কারের দাবিতে শাহবাগে সিলেটি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধবন  » «   আসামে নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়লেন আরও এক লাখ  » «   বিশ্বনাথে ডাকাতের সঙ্গে গোলাগুলি, ৫ পুলিশ গুলিবিদ্ধ  » «   প্রাথমিকে চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের জন্য সুখবর  » «   স্বাস্থ্যসনদ পেলেন সাড়ে ৬২ হাজার হজ গমনেচ্ছু  » «   হবিগঞ্জে পিস্তল ঠেকিয়ে মোটরসাইকেল ছিনতাই  » «   সাংবাদিকদের বিক্ষোভ কর্মসূচি, ক্ষমা চাইতে হবে দুদককে  » «   যুক্তরাষ্ট্রে যাবার সময় নদীতে ডুবলো শরণার্থী বাবা-মেয়ে  » «   দেশে ফিরছেন সাগরে ভাসা আরও ২৪ বাংলাদেশি  » «   অস্ট্রেলিয়ায় আগুনে পুড়ে ৩ ভাই-বোন নিহত  » «   অবশেষে বরখাস্ত ডিআইজি মিজান  » «   সরকারি চাকরিতে ডোপটেস্ট বাধ্যতামূলক করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ঘুষ নেয়ার ভিডিও করায় সাংবাদিককে পেটাল পুলিশ, ৪ পুলিশ সদস্য ক্লোজড  » «  

হাতের মুঠোয় মুশকিল আসান



news_imgতথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক :: বাংলাদেশের নারীদের বিভিন্ন তথ্যসেবা দিতে প্রথমবারের মতো চালু হল এক অভিনব মোবাইল অ্যাপ। মঙ্গলবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলা এবং ইংরেজি দুই ভাষাতেই যাত্রা শুরু করবে মায়া আপা অ্যাপ।

গুগল প্লে স্টোর থেকে যে কেউ এই অ্যাপটি বিনামূল্যে নামাতে পারবেন। ব্র্যাকের অংশিদারত্ব এবং সহযোগিতায় নারীদের পরামর্শ সহায়তা দিতে মায়া.কম.বিডি (www.maya.com.bd) নিয়ে এসেছে এই অ্যাপটি।

অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশের অসাধারণ উদ্যমী একদল নারী উদ্যোক্তা, কম্পিউটার প্রকৌশলী, ডাক্তার এবং আইনজীবী মিলে দেশের সব বয়সী নারীর জন্য তৈরি করেছেন এ মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন।

স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে সাহায্য করার পাশাপাশি নারীদের বিভিন্ন সামাজিক এবং আইনি সমস্যা সমাধানের পরামর্শ দিয়েও দারুণ ভূমিকা পালন করবে এটি।

‘মায়া আপা’ নারীদের (অথবা যে কারও) বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ চাইবার এমন একটি ব্যবস্থা, যেখানে যে কেউ নিজের নাম-পরিচয় গোপন রেখেই তার প্রশ্নটি করতে পারবেন। ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বিশেষজ্ঞরা এর প্রয়োজনীয় জবাব দেবেন।

আমাদের দেশে নাম-পরিচয় গোপন রেখে পরামর্শ পাওয়ার প্রথম ওয়েবসাইট মায়া.কম.বিডি’র (www.maya.com.bd) সবচেয়ে সফল ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন ‘মায়া আপা কী বলে’র ওপর ভিত্তি করে এ মোবাইল অ্যাপটি তৈরি। এখানে প্রশ্ন করতে শুধু একটি ই-মেইল ঠিকানা থাকাই যথেষ্ট। ফলে ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই তাদের গোপনীয়তা বজায় রাখতে পারেন।

ডাক্তার, আইনজীবী ও মনোসামাজিক পরামর্শকদের সমন্বয়ে গড়া একটি দল এ মোবাইল অ্যাপটির মাধ্যমে প্রতিদিন নানা ধরনের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন। তারা বাংলা ভাষার প্রশ্নের উত্তর বাংলায় এবং ইংরেজি ভাষার প্রশ্নের উত্তর ইংরেজিতেই দেন।

যেকোনো ধরনের অ্যান্ড্রয়েডভিত্তিক স্মার্টফোনে ব্যবহার করা যায় বলে এ মোবাইল অ্যাপটি নিয়ে মায়া-ব্র্যাক দল বাংলাদেশের শহুরে এবং গ্রামীণ এলাকায় বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত মানুষের কাছে তথ্য ও পরামর্শ পৌঁছে দিতে পারবেন বলে আশা করছেন।

অ্যাপটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্র্যাকের জেন্ডার জাস্টিস অ্যান্ড ডাইভারসিটির পরিচালক শীপা হাফিজা বলেন, এ অ্যাপ্লিকেশনটি শুধু যে তথ্য ও সেবার জগতে সারাদেশের নারীদের প্রবেশ নিশ্চিত করবে তাই নয়, সহযোগিতামূলক একটি সমাজ গড়তে জাতীয় ঐকমত্য তৈরিতেও সাহায্য করবে।

তিনি জানান, উদ্যোক্তা তৈরির যে নতুন সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে তাতে ‘মায়া আপা’ মোবাইল অ্যাপটি এক ভিন্ন মাত্রা এনে দিয়েছে। এ অ্যাপটি দুই নারী কম্পিউটার প্রকৌশলীর নেতৃত্বে তৈরি প্রথম অ্যাপ যা নারীদের সব ধরনের পরামর্শ পাবার একটা নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছে।

আসিয়া খালেদা নীলা এবং সুব্রামি মৌটুসী মৌ- এ দুই তরুণী সফটওয়্যার প্রকৌশলীর যৌথ প্রয়াসে অ্যাপটি তৈরি হয়েছে। নীলা ও মৌটুসীর মতে, তাদের তৈরি করা এ অ্যাপ্লিকেশনটি হাজারো মোবাইল অ্যাপের চেয়ে আলাদা, প্রযুক্তির হাত দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের একটি মাধ্যম।

মায়ার প্রতিষ্ঠাতা আইভি এইচ রাসেল যোগ করেন, আমরা চাই মায়া আপা অ্যাপটি প্রতিনিয়তই উদ্ভাবনের উৎকর্ষে আমাদের অনুপ্রাণিত করুক। আমাদের লক্ষ্য, যে তথ্য নারীরা খুঁজছেন, প্রযুক্তির মাধ্যমে সেই তথ্য তাদের হাতের মুঠোয় পৌঁছে দেওয়া। এ বছরে আমাদের পথ পরিক্রমায় এরকম আরও অনেক চমকই থাকছে।

সারা পৃথিবীতে যে ডিজিটাল বিপ্লব ঘটছে, মায়া.কম.বিডি তার সঙ্গে বাংলাদেশের সব নারীকে সংযুক্ত করতে চায়। তারই একটি পদক্ষেপ হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে মায়া আপা অ্যাপ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: