বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে ফিরছেন সাগরে ভাসা আরও ২৪ বাংলাদেশি  » «   অস্ট্রেলিয়ায় আগুনে পুড়ে ৩ ভাই-বোন নিহত  » «   অবশেষে বরখাস্ত ডিআইজি মিজান  » «   সরকারি চাকরিতে ডোপটেস্ট বাধ্যতামূলক করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ঘুষ নেয়ার ভিডিও করায় সাংবাদিককে পেটাল পুলিশ, ৪ পুলিশ সদস্য ক্লোজড  » «   শেষ বয়সে খেলোয়াড়দের সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ‍নিতে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে প্রধানমন্ত্রীর নির্দে  » «   বিএনপির নেতৃত্বে আসছেন তারেকের কন্যা!  » «   সরকারি নিয়োগের স্বাস্থ্য পরীক্ষা বেসরকারিতে!  » «   তিন বাংলাদেশিসহ চার নব্য জেএমবি জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে কলকাতা পুলিশ  » «   ‘শহীদ’ জিয়াকে নিয়ে সংসদে মমতাজের হাস্যরস  » «   বগুড়া-৬ উপনির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে বিএনপি প্রার্থীর জয়  » «   প্রথমবার সিলেট-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটে উড়বে ইউএস-বাংলা  » «   ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো ইন্দোনেশিয়ায়-জাপান-অস্ট্রেলিয়া  » «   ভোটকেন্দ্রেই ঘুমিয়ে পড়লেন কর্মকর্তা  » «   ‘জয় শ্রীরাম’ না বলায় পিটিয়ে মুসলিম যুবককে হত্যা  » «  

হলফনামার তথ্য: বছরে ৩০ লাখ টাকার রেমিট্যান্স পান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী



নিউজ ডেস্ক:: বছরে প্রায় ৩০ লাখ টাকার রেমিট্যান্স পান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। একাদশ সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১২ আসন থেকে নির্বাচিত এই সাংসদের পেশা রাজনীতি ও সমাজসেবা বলে তিনি হলফনামায় উল্লেখ করেছেন।

কোটি টাকার ওপরে সম্পদের মালিক এই রাজনীতিক বাড়ি ভাড়া থেকে বছরে আয় করেন তিন লাখ ৬০ হাজার টাকা। ব্যবসা থেকে নিজের কোনো আয় না থাকলেও তার স্ত্রীর আয় ৪৯ লাখ ২২ হাজার ৪৮২ টাকা।

হলফনামা অনুযায়ী মন্ত্রী হিসেবে বেতন ভাতা খাতে তার নিজের আয় রয়েছে ২৩ লাখ ২৭ হাজার ৫৮০ টাকা এবং চাকরি থেকে তার স্ত্রীর আয় এক লাখ ৮০ হাজার টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র ও ব্যাংক আমানতে নিজের আয় সাত লাখ ৬১ হাজার ৫৬১ টাকা এবং স্ত্রীর এক লাখ ৬৩ হাজার ১৪ টাকা।

এছাড়া মুক্তিযোদ্ধা ভাতা ও ফরেন রেমিট্যান্স খাতে তার নিজের আয় ৩০ লাখ ৩০ হাজার টাকা এবং স্ত্রীর আয় আট লাখ ২০ হাজার টাকা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী একমাত্র ছেলের কাছ থেকে তিনি এই রেমিট্যান্স পান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর স্থাবর সম্পদের মধ্যে কৃষি জমির পরিমাণ ৪৭১ দশমিক ৫ শতাংশ যার অর্জনকালীন মূল্য ৫৫ লাখ ৯৫ হাজার ৮৫০ টাকা। অকৃষি জমি নিজ নামে সাড়ে ১৮ কাঠা মূল্য ৫৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা; স্ত্রীর নামে ১৩৪ অযুতাংশ, যার মূল্য ৩১ লাখ ৬২ হাজার ৫০০ টাকা। এ ছাড়া নিজ নামে বাড়ি বা অ্যাপার্টমেন্টের মূল্য ১২ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকা।

অস্থাবর সম্পদের মধ্যে তার হাতে নগদ টাকা রয়েছে দুই লাখ ৭০ হাজার ৬৮৫ টাকা; স্ত্রীর হাতে ৩৯ লাখ ৩৬ হাজার ৩৪৬ টাকা। ব্যাংকে জমাকৃত অর্থের পরিমাণ এক কোটি ৪৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৬২ টাকা; স্ত্রীর নামে ১২ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৮ টাকা। বন্ড, ঋণপত্র বা শেয়ার রয়েছে নিজের ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৭০০ টাকার; স্ত্রীর ২৩ লাখ ১৯ হাজার ৭০০ টাকার।

সঞ্চয়পত্র বা স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ এক কোটি ৫৬ লাখ ৮০ হাজার ২৩৫ টাকা; স্ত্রীর নামে ৩০ লাখ ৮২ হাজার ৮২৬ টাকা। এমপি কোটায় দুটি গাড়ির মূল্য দেখিয়েছেন, ৪১ লাখ ৭৮ হাজার ৮০৫ টাকা এবং ৭৩ লাখ টাকা। স্বর্ণ নিজের ১০ ভরি ও স্ত্রীর ২০ ভরি। এ ছাড়া দুই লাখ টাকার আসবাবপত্র ও ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী রয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: