শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
কাশ্মীর বিদ্রোহী নেতার নামে পাকিস্তানের ডাকটিকিটি প্রকাশ  » «   সংসদ নির্বাচনে হুমকি ‘সাইবার ক্রাইম’, গুজব ঠেকাতে সজাগ পুলিশ  » «   তাঞ্জানিয়ায় ফেরি ডুবি, নিহত বেড়ে ১৩৬  » «   আইনগত অনুমোদন পেলেই সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার: সিইসি  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের কার জন্য কত টাকা গৃহঋণ  » «   গণেশের ছবি দিয়ে বিজ্ঞাপন: হিন্দুদের কাছে ট্রাম্পের দলের দুঃখ প্রকাশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলো কোটা বাতিলের সুপারিশ  » «   রেলের আধুনিকায়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  » «   কেন মুনকে বিশেষ সেই ‘পবিত্র পর্বতে’ নিয়ে গেলেন কিম?  » «   সুখোই কিনলে ভারতকেও নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে!  » «   প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের পথে লন্ডন পৌঁছেছেন  » «   তাঁতশিল্প আধুনিকায়নে বিশেষ উদ্যোগ, বাড়ছে ঋণ  » «   আফগানিস্তানে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১৫  » «   রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «  

হরতাল-সমর্থকদের মিছিলে পুলিশের টিয়ার শেল



রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ ও বিদ্যুৎ-গ্যাস সমস্যা সমাধানে সাত দফা বাস্তবায়নের দাবিতে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির ডাকা অর্ধদিবস হরতাল ও বিক্ষোভ আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীতে সকাল ৬টা থেকে শুরু হয়েছে।

হরতালে শাহবাগে পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। পুলিশের টিয়ার শেল ও লাঠিচার্জে ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে নাসির উদ্দিন প্রিন্স (২৮), ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লাকী আক্তার (২৬), উম্মে হাবিবা বেনজির (২৫), কাকন বিশ্বাস (২৪), লাবনী মণ্ডল (২৪) ও ফারজানাকে (২২) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হরতালের সমর্থনে আজ সকাল আটটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলার সামনে থেকে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির একটি মিছিল বের হয়। মিছিলটি জাতীয় জাদুঘরের সামনে আসলে পুলিশের ব্যারিকেডের মুখোমুখি হয়। পুলিশ মিছিলটি শাহবাগ অতিক্রম করতে না দিলে নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে নেতাকর্মীরা পুুলিশের বাধা উপেক্ষা করে যেতে চাইল পুলিশ টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশ নেতাকর্মীদের লাঠিচার্জ করে। মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ জলকামান দিয়ে গরম পানি নিক্ষেপ করে।

শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, টিয়ার সেল নিক্ষেপ ও জলকামান ব্যবহার করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে কোনো লাঠিচার্জের ঘটনা ঘটেনি। এ ঘটনায় কাউকে আটকও করা হয়নি।

রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ ও বিদ্যুৎ-গ্যাস সমস্যা সমাধানে সাত দফা বাস্তবায়নের দাবিতে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: