শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

স্বামী-সন্তানের স্বীকৃতির দাবিতে প্রবাসী স্ত্রীর অনশন



নিউজ ডেস্ক::যে মা বহু কষ্ট সহ্য করে সন্তান জন্ম দেন, সেই মাই আবার ছেলের স্বীকৃতির দাবিতে ৭ দিন ধরে শ্বশুরবাড়িতে অনশন করছেন। এমনকি তার চার মাসের পুত্রসন্তান বাবার পরিচয় ও স্বামীর স্বীকৃতি না পাওয়া পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবেন বলেও জানান তিনি।

এতক্ষণ বলছিলাম- সিরাজগঞ্জ জেলার বামনগাতী গ্রামের হায়দার আলী শেখের মেয়ে হাসি বেগমের (২২) কথা।

জানা যায়, তিন বছর আগে মাদারীপুরের কালকিনি পৌর এলাকার দক্ষিণ কৃষ্ণনগর গ্রামের মান্নান মুন্সির ছেলে সাইফুল মুন্সির সঙ্গে প্রেমের সূত্র ধরে জর্দানে বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের পরে হাসি বেগম অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে সাইফুল তার স্ত্রী হাসিকে একা দেশে পাঠিয়ে দেন। এর চার মাস পর তাদের একটি পুত্রসন্তান জন্ম নেয়। সন্তানের খবর শুনে দেশে চলে আসেন সাইফুল।

কিন্তু দেশে ফিরে স্ত্রী হাসি ও সন্তানের কথা ভুলে যায় সাইফুল। হাসিকে স্ত্রী হিসেবে কোনো স্বীকৃতি না দিয়ে শুরু করে বিভিন্ন টালবাহানা। পরে স্ত্রী হাসি বেগম কোনো উপায় না পেয়ে স্বামীর স্বীকৃতির দাবিতে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে অনশন শুরু করেন। এদিকে হাসি তার বাড়িতে আসায় স্বামী সাইফুল বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে গেছেন।

এ সুযোগে প্রতিনিয়ত হাসি বেগমের শাশুড়ি হামিদা বেগম, শামীম ফকির ও লিপিসহ বেশ কয়েকজন মিলে তাকে বেদম মারধর করছেন বলে অভিযোগ করেছে হাসি বেগম।
এ মারধর সহ্য করতে না পেরে হাসি বেগম বাদী হয়ে স্বামী সাইফুল মুন্সিসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে কালকিনি থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সনজিব বলেন, এ মামলার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: