সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

স্বামীর মৃত্যুদণ্ডের খবর শুনেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে কাসেমের স্ত্রীর খোলা চিঠি



14192093_613657818804179_8515121919581114414_nনিউজ ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও দিগন্ত মিডিয়া করপোরেশনের চেয়ারম্যান মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। ফলে তার ফাঁসির রায় বহাল থাকল।

আজ মঙ্গলবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন। এ রায়ের পর তার পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে।

এর আগে গত ১০ আগস্ট রাজধানীর মিরপুর ডিওএইচএসের বাসা থেকে মীর কাসেম আলীর ছেলে আইনজীবী মীর আহমাদ বিন কাসেম আরমানকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার।

স্বামীর মৃত্যুদণ্ড বহালের সংবাদ ও সন্তানকে ফিরে পেতে মীর কাসেমের স্ত্রী খন্দকার আয়শা খাতুন তার ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর নিবেদন মূলক একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে নিজেরে ছেলেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ভিক্ষা চান তিনি।
পাঠকদের জন্য মীর কাসেমের স্ত্রীর ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবহু তুরে ধরা হলো:

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী

যথাযথ সম্মানপুর্ক নিবেদন

আমি এক অসহায় মা। মীর কাসেমের মৃত্যুদন্ড বহাল থাকায় আপনার নিকট আমার এবং আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আরজ এই যে আমার পরিবারে কোন পুরুষ লোক নেই। আমার সন্তান ছোট ছেলে ব্যারিস্টার মীর আহমআদ আলী ঈ একমাত্র তার বাবা &আমাদের পরিবারের যাবতীয় কাজ করত। অর অবর্তমানে আমরা খুবেই অসহায়।

তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত ৯ ঈ আগস্ট সাদা পোষাকে উঠিয়ে নেয়ার পরে আজ পর্যন্ত কোন খোঁজ পাইনি।

জনাব প্রধানমন্রী, আমি স্বামীর এই শেষ মুহুর্তে তাকে অবশ্য ঈ আমাদের মাঝে পেতে হবে। অকে ছাড়া আমাদের কোন কাজই করতে পারা সম্ভব নয়।

যে কোন ভাবেই হোক মানবীয়ভাবে এবং বাস্তব প্রোয়োজনেই আমাদের কাছে আরমান ফিরয়ে দিতে দিন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: