মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
কমলাপুর রেলওভার ব্রিজের ত্রুটির চিত্র তুলে ধরলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   জিন্দাবাজারে মিললো ২টি গোখরাসহ ৬ বিষধর সাপ  » «   কাশ্মীর ইস্যুতে আলোচনায় বসছেন ট্রাম্প- মোদী!  » «   মাত্র ১০০ মিটার দূরেই শত্রু  » «   অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকবে সরকার: কাদের  » «   থানায় ‘গণধর্ষণের’ শিকার সেই নারীর জামিন নামঞ্জুর  » «   মিন্নির স্বীকারোক্তির আগে নাকি পরে এসপির ব্রিফিং : হাইকোর্ট  » «   প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবারে মন্ত্রিসভার সায়  » «   নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ নিয়ে আপিল বিভাগের সিদ্ধান্ত মঙ্গলবার  » «   পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে প্রবাসীর ওপর হামলা: দুই ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেপ্তার  » «   সিলেটসহ রেলের পূর্বাঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিতে হাইকোর্টের রুল  » «   বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগ নেতারা জড়িত : ফখরুল  » «   রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: ‘শঙ্কা’ নিয়েই প্রস্তুত বাংলাদেশ  » «   সুনামগঞ্জে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা  » «   পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইভিনিং প্রোগ্রামে জমজমাট শিক্ষা বাণিজ্য  » «  

স্বরাষ্ট্র সচিবের নির্দেশেই তারেকের পাসপোর্ট নবায়ন



TARAK-GT-1419733330নিউজ ডেস্ক: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব তারেক রহমানের পাসপোর্টের মেয়াদ বৃদ্ধি সংক্রান্ত বিষয়ে হাইকোর্ট জানতে চাইলে অভিনব তথ্য দিয়েছে তদন্তকারী কর্মকর্তারা।
প্রতিবেদনে বলা হয়, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পাসপোর্ট নবায়ন করা হয়েছিলো। অপরদিকে তারেক রহমান একাধিক পাসপোর্ট ধারণ করেননি বলে প্রতিবেদন দিয়েছে পুলিশ।
প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত/ডেপুটি হাইকমিশনার(লন্ডন) আল্লামা সিদ্দিকী বলেন, তৎকালীন স্বরাষ্ট্রসচিব মো. আব্দুল করিম আমাকে তারেক রহমানের পাসপোর্ট নবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলেন।
প্রতিবেদনগুলো রেকর্ডে নিয়ে রোববার তারেকের বিষয়ে ইতোপূর্বে জারি করা রুল শুনানি প্রস্তুত করতে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।
গত ২৩ জুন এক আদেশে এ বিষয়ে প্রতিবেদন চেয়েছিলেন হাইকোর্ট। এ আদেশের প্রেক্ষিতে গত ৫ আগস্ট এমন প্রতিবেদন দেয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং পুলিশ।
রোববার প্রতিবেদনের বিষয়ে অদেশের দিন ধার্য ছিল।
বিদেশে বসে বঙ্গবন্ধুর নামে বিভিন্ন আপত্তিকর মন্তব্য করা নিয়ে গত ৭ জানুয়ারি তারেকের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে একটি রিট করা হয়। এ রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আইনের দৃষ্টিতে পলাতক থাকায় তারেক রহমানের বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন হাইকোর্ট।
একইসঙ্গে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারির বিষয়ে রুল জারি এবং তারেকের বর্তমান অবস্থানসহ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চান হাইকোর্ট।
এ আদেশের বিষয়ে প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের পর গত ২৩ জুন তারেক রহমানের একাধিক পাসপোর্ট এবং মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পাসপোর্ট নবায়নের বিষয়ে জানাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং পুলিশকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।
আদালতের এ আদেশ অনুসারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং পুলিশের পক্ষ থেকে দেওয়া প্রতিবেদনগুলো দাখিল করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর তার(তারেক) পাসপোর্ট ইস্যু করা হয়। যার মেয়াদ ছিলো ২০১০ সালের ৩ জুন পযন্ত। পরে তৎকালীন স্বরাষ্ট্র সচিবের অনুরোধে ২০১৩ সালের ৩ সেপ্টেম্বর তারেকের পাসপোর্টের মেয়াদ আবারো বাড়ানো হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: