শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাবনায় ছাত্রদলের কমিটি বাতিল এবং যোগ্য ও মেধাবীদের নিয়ে নতুন কমিটির দাবিতে বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দের পদত্যাগ  » «   পবিত্র হজকে রাজনীতির হাতিয়ার বানিয়েছে সৌদি  » «   চুয়াডাঙ্গায় সাপের কামড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু  » «   সিটি নির্বাচন ১৭ প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নিয়েছে বিএনপি  » «   বৃদ্ধ মাকে মারধর, যে পরিণাম হল সন্তানের  » «   এমপিপুত্র শাবাবকে ‘শনাক্তে’ পুলিশের হাতে সিসিটিভি ফুটেজ  » «   জেনে নিন শাওয়াল মাসের ছয়টি রোজার ফজিলত  » «   মৃত্যুভয়ে ১১ তলা পাইপ বেয়ে নামে শিশুটি  » «   বিএনপির কর্মীরা এখন ঢাকায় রিকশা চালায় : ফখরুল  » «   দীপিকা-রণবীরের বিয়ের দিনক্ষণ ফাঁস!  » «   জনপ্রিয়তা বেড়েছে বিটিভির  » «   দিনদুপুরে পার্কে গণধর্ষণ, সেনাবাহিনী ঘিরে ফেলে পার্ক এলাকা  » «   ফের দক্ষিণের ১৫ রুটে বাস চলাচল বন্ধ  » «   স্বামী-সন্তানের স্বীকৃতির দাবিতে প্রবাসী স্ত্রীর অনশন  » «   সাবেক প্রেমিকা কোপাল বর্তমান প্রেমিকাকে!  » «  

সেলাই কাটার পর কেমন আছে জোড়া শিশু?



নিউজ ডেস্ক::অস্ত্রোপচারে পৃথক করা গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ১০ মাস বয়সি জোড়া শিশু তোফা ও তহুরা এখন ভাল আছে।

বুধবার (১৬ আগস্ট) তাদের সেলাই কাটা হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার অথবা শুক্রবার তাদের প্রস্রাবের রাস্তার নলও খুলে দেয়া হতে পারে।

শিশু দুটির বর্তমান অবস্থা সম্পের্ক জানতে চাইলে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাহনূর ইসলাম বলেন, ওরা এখন ভাল আছে। আজ ওদের সেলাই কাটা হয়েছে। খাবার দাবার ঠিকমত চলছে। অন্য কোন সমস্যাও নেই। তবে আরো কয়েকদিন ওদের হাসপাতালে থাকা লাগবে।

পরবর্তী চিকিৎসা সম্পর্কে তিনি বলেন, ক্যাথেটার আছে, ক্যাথেটার খোলা হবে। প্রস্রাবের রাস্তায় নল দেয়া আছে ওটা খুলতে হবে। নল খোলার আগে গ্লাপ করা হয়। আমরা গ্লাপ করা শুরু করেছি। অবস্থা বুঝে আগামীকাল বা পরশু নল খোলা হবে হয়তো।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর তোফা ও তহুরার জন্ম হয়। গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের ঝিনিয়া গ্রামের রাজু মিয়া ও শাহিদা বেগমের জোড়া সন্তান তোফা ও তহুরা। গত ৭ অক্টোবর ৯ দিন বয়সে জোড়া শিশু দুটিকে চিকিৎসার জন্য ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে জোড়া শিশু দুটির প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করা হয়।
তখন ছোট একটি অপারেশনের মাধ্যমে তাদের পায়খানার রাস্তা আলাদা করে দেয়া হয়। এরপর তাদেরকে শুধু প্রাথমিক চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। দীর্ঘ ১০ মাস প্রাথমিক চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণে রাখার পর গত ২ আগস্ট তৌফা ও তহুরার অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: