শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
এমপি কয়েসের হাত ধরে বিএনপির হাবিব এখন আওয়ামী লীগে  » «   জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী আজ  » «   রোহিঙ্গাদের দেখতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত  » «   ‘দম বন্ধ হয়ে আসছে, আমাকে ছেড়ে দিন’  » «   দুই যুগে কতটা সফল ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা?  » «   কলম্বিয়ায় পুলিশ একাডেমিতে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১০  » «   সোহরাওয়ার্দীতে আজ আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ  » «   জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «  

সেই ‘বড় আম্মা’ রিমান্ডে!



নিউজ ডেস্ক::বারবার চালান ধরলেই যার নাম আসতে থাকে। দীর্ঘ দিনের গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে গত রোববার বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আসেন ‘বড় আম্মা’। ইয়াবার বিশাল ব্যাবসার নিয়ন্ত্রণ করে সাঙ্গপাঙ্গদের মধ্যে ‘বড় আম্মা’ নামে পরিচিতি পাওয়া টেকনাফের আয়েশা বেগমকে (৪২) বৃহস্পতিবার (১৭ মে) দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট।

রাজধানীর কদমতলী থানার একটি মামলায় আয়েশা এবং তার দুই সহযোগী নূরী আয়েশা এবং রিপনকেও রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জিজ্ঞাসাবাদে এরই মধ্যে আয়েশার কাছ থেকে কক্সবাজার ও ঢাকাকেন্দ্রিক মাদক ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে বেশ কিছু তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ। মোহাম্মদপুরে জেনেভা ক্যাম্পের যেসব গ্রুপ তার কাছ থেকে ইয়াবা নিয়ে বিক্রি করে আসছিল, তাদের নাম-পরিচয় জানিয়েছেন তিনি। জেনেভা ক্যাম্পের বাচ্চু, সাকিল ও পচিশের ব্যাপারে তার কাছে তথ্য পাওয়া গেছে। এমনকি খুচরা মাদক ব্যবসায়ীদের একটি বিশাল তালিকাও কথিত এই বড় আম্মার কাছ থেকে পেয়েছে পুলিশ।

কাউন্টার টেররিজম বিভাগের এডিসি রহমত উল্লাহ চৌধুরী জানান, ‘বড় আম্মা’র চক্রের আরও কয়েকজনের ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া গেছে। শিগগিরই তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হবে।

এর আগে গত রোববার বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আসেন ‘বড় আম্মা’। কাশিমপুর ও কেরানীগঞ্জ কারাগারে গিয়ে স্বজন হিসেবে তার সাঙ্গপাঙ্গদের সঙ্গে দেখা করেন। তার দলের যারা এরই মধ্যে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে আছে তাদের আর্থিক সহায়তা ও কেনাকাটা করে দিয়ে আসেন তিনি। এমনকি কারাবন্দি ইয়াবা ব্যবসায়ীদের দ্রুত জামিন করিয়ে কারাগার থেকে বের করে আনার আশ্বাসও দেন ‘বড় আম্মা’। কক্সবাজার থেকে ঢাকায় এসে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সহায়তা করতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত গত বুধবার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন তিনি।

পুলিশ জানায়, ২০১১ সাল থেকে টেকনাফ ও কক্সবাজারে বসে রাজধানী সহ আশপাশের এলাকায় প্রতি মাসে লাখ লাখ ইয়াবা ট্যাবলেট সরবরাহ করে আসছিলেন তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: