বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বরখাস্তকৃত ন্যানগ্যাগওয়াই হচ্ছেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট  » «   খালেদার গাড়িবহরে হামলা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের পরিকল্পনার অংশ  » «   এক মোটরসাইকেলেই বিশ্ব রেকর্ড  » «   কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া, ১শ শিশুর ঠোঁটের অস্ত্রোপচারে খরচ দিবেন  » «   কাল থেকে পুনরায় চালু হচ্ছে চুয়েট বাস  » «   বলি একটা লেখেন আরেকটা: সাংবাদিকদের রোনালদো  » «   এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি  » «   মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ছাত্রলীগের স্কুল কমিটি  » «   এগিয়ে থাকুন সৃজনশীলতায়  » «   সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ১ বছরে সাড়ে ৩ কোটি ইয়াবা জব্দ  » «   শ্রীমঙ্গলে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন  » «   দখলমুক্ত হচ্ছে খাল ও নদী  » «   কুমিল্লায় হানিফ‘আ’লীগকে হুংকার দিয়ে লাভ নেই’  » «   কমলগঞ্জে প্রতিহিংসায় বিনষ্ট কৃষকের শিম বাগান  » «   অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ নানা অভিযোগ  » «  

সিলেটে হরতাল চলছে : ঝটিকা মিছিল, ককটেল বিস্ফোরণ ও গাড়ি ভাংচুর করেছে পিকেটাররা



imagesনিউজ ডেস্ক :: সিলেটে সকাল ৬টা থেকে শুরু হওয়া হরতাল ঝটিকা মিছিল, ককটেল বিস্ফোরণ আর গাড়ি ভাংচুরের মধ্য দিয়ে চলছে। রাস্তা-ঘাট ফাকা রয়েছে। বিভিন্ন পয়েন্টে সতর্ক অবস্থায় পুলিশ অবস্থান করছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, বুধবার সকালে বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে থেকে জেলা ও মহানগর ছাত্রদল নেতাকর্মীরা একটি ঝটিকা মিছিল বের করে। প্রায় একই সময়ে নগরীর চৌকিদিখি এলাকায় ঝটিকা মিছিল বের করে ছাত্র শিবির কর্মীরা। ছাত্রদলের মিছিলটি করিমউল্লাহ মর্কেটের সম্মুখে পুলিশকে লক্ষ করে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে পুলিশের একটি টহল দল ঘটনাস্থলে পৌছালে তারা পালিয়ে যায়।
চৌকিদিখি এলাকায় ছাত্র শিবিরের কর্মীরা মিছিল শেষে দুটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা ভাংচুর করার খবর পাওয়া গেছে।
এদিকে সিলেট নগরীর তালতলা এলাকায় বুধবার সকালে নর্থ ইস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে শিবির নেতাকর্মীরা একটি অটোরিকশায় আগুন ধরিয়ে দেয়।
তাছাড়া হরতালের সমর্থনে গত রাত থেকেই সহিংসতা লিপ্ত হয় হরতাল সমর্থনকারীরা। সিলেট নগরীর শাহী ঈদগাহ পয়েন্টে একটি ট্রাক, লেগুনা ভ্যান এবং একটি অটোরিকশার উপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করেছে তারা। ঘটনায় অটোরিকশার তিন যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।
হরতালের প্রভাবে নগরীর সর্বত্র যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। মাঝে মধ্যে দু’একটি অটোরিক্সা চলতে দেখা গেলেও ভারী যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। কদমতলী বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোন বাস ছেড়ে যায়নি কিংবা আসেনি। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে বলে যানা গেছে। ছোট-বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সরকারী অফিস আদাল, ব্যাংক বীমা অফিস খোলা থাকলেও প্রধান ফটক বন্ধ রয়েছে। সর্বত্র জনসাধারণের তুলনামূলক উপস্থিতি হার অনেক কমে গেছে।
হরতালে পুলিশ নগরীর গুরুত্বপুর্ণ পয়েন্টগুলোতে অবস্থানসহ প্রধান সড়কগুলোতে টহল অব্যাহত রেখেছে। তবে সকাল সাড়ে ১১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন গ্রেফতার নেই বলে নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) রহমত উল্লাহ।
উল্লেখ্য, গতকাল মঙ্গলবার সিলেট মহানগর জামায়াতের আমীর এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়েরকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে ছাত্র শিবির বুধবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে। আর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অবরুদ্ধ করে রাখা, গণমাধ্যমে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচারে নিষেধাজ্ঞাসহ স্থানীয় ও জাতীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে সিলেটে ছাত্রদলের বিদ্রোহী গ্রুপ বৃহস্পতিবার হরতাল আহবান করলে তাতে অন্যান্য সংগঠন সমর্থন জানায়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: