শনিবার, ৬ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

সিলেটে গাড়ি চুরি মামলায় চিটিং মণি গ্রেফতার



নিউজ ডেস্ক:: সিলেটে গাড়ি চুরি মামলায় এক লন্ডন প্রবাসীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার নাম মুহিত সুলায়মান খান তানিম ওরফে মণি। মঙ্গলবার সকালে মণিকে আদালতে পাঠিয়েছে সিলেট বিমানবন্দর থানা পুলিশ।এর আগে সোমবার রাতে গাড়ি চুরি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিমানবন্দর থানার ওসি সাহাদাত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্ত্রীর বদৌলতে লন্ডনে গেলেও মাদকাসক্তি, প্রতারণা, জালিয়াতি থেকে দূরে সরতে পারেননি মণি। তাই সিলেটে পরিচিতি পেয়েছেন চিটিং মণি হিসেবে। মুহিত সুলায়মান খান তানিম ওরফে মণি নগরীর ফাজিলচিস্ত এলাকার ৯ নম্বর বাসার বাসিন্দা আবদুল মালেক খানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শহরতলির বাদাঘাট এলাকার ব্যবসায়ী ফরিদ আহমদের ছোটভাই লিমন আহমদের সঙ্গে পরিচয় ছিল মণির। এর সূত্র ধরে গত ৪ সেপ্টেম্বর লিমনের কাছ থেকে তার বড় ভাই ফরিদ আহমদের ‘নোহা’ গাড়িটি কয়েক ঘণ্টার জন্য চেয়ে নেন প্রতারক মণি।

ওই দিনই গাড়িটি নগরীর গোয়াইপাড়ার বাসিন্দা আবদুল্লাহর কাছে মাত্র এক লাখ ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন। লিমন আহমদ গাড়িটি ফেরত চাইলে টালবাহানা শুরু করেন মণি।পরে লিমন জানতে পারেন তার ভাইয়ের গাড়িটি মণি বিক্রি করে দিয়েছে।

এ ব্যাপারে গত সোমবার সকালে ফরিদ আহমদ বাদী হয়ে মণির বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে নগরীর মজুমদারি এলাকার বিএম টাওয়ার মণিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এর মাত্র দুই মাস আগে মণির পরিচয় হয় নগরীর এক রাইড শেয়ারিং চালকের। সেই সুবাদে মোটরসাইকেলটি মাসিক ভাড়া চুক্তিতে নিজে চালাবেন বলে নিয়ে আসেন মণি। এর পর মোটরসাইকেলটি অন্যত্র বিক্রি করে দেন।এরও আগে ২০০৩ সালে হেরোইনসহ পুলিশের হাতে ধরা পড়েছিলেন মণি। এর পর মাস তিনেক জেলও খাটেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: