সোমবার, ১২ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
৩০০ আসনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ ইসির  » «   পাকিস্তানি স্নাইপারের গুলিতে ৩ ভারতীয় সেনা নিহত  » «   সংসদ নির্বাচনে মাশরাফি : কী বলছে ক্রিকেটীয় আইন?  » «   তরুণদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   একাদশ সংসদ নির্বাচনে পুনঃতফসিল: ৩০ ডিসেম্বর ভোট  » «   আজ সেই ভয়াল ১২ নভেম্বর  » «   রামমন্দির নিয়ে শান্তিপূর্ণ সমাধান চান মুসলিমরা: আব্বাস নাকভি  » «   জ্বলছে ক্যালিফোর্নিয়া! আতঙ্কে বাড়ি ছাড়ছেন হলিউড তারকারা  » «   বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু, খালেদার জন্য ৩ আসনের ফরম  » «   গাজায় ইসরাইলি সেনাদের কমান্ডো হামলায় ৭ ফিলিস্তিনি নিহত  » «   খালেদা জিয়ার সঙ্গে আজ দেখা করবেন বিএনপি নেতারা  » «   বিএনপির কাছে যেসব আসন দাবি করেছে শরিকরা  » «   নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণে গণতন্ত্র আরও শক্তিশালী হবে- প্রধানমন্ত্রী  » «   রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ট্রানজিট ক্যাম্প প্রস্তুত  » «   সিলেট-১ আসনে মনোনয়ন কিনলেন কামরান  » «  

সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ ঘিরে সরব বিএনপি



নিউজ ডেস্ক:: নতুন রাজনৈতিক জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ৩৬০ আউলিয়ার পুণ্যভূমি সিলেটে আগামী ২৪ অক্টোবর সমাবেশের মধ্য দিয়ে নিজেদের যাত্রা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করবে।ইতোমধ্যে সমাবেশ সফল করতে সিলেটে বিএনপির পক্ষ থেকে কর্মতৎপরতা শুরু হয়েছে। তবে বিএনপি ছাড়া ঐক্যের অন্য শরিকরা এখন পর্যন্ত নীরব রয়েছেন।

এদিকে, গণফোরাম ও জেএসডি ছাড়া নাগরিক ঐক্যের সিলেটে কোনো কমিটি নেই। তাদের রাজনৈতিক কর্মতৎপরতা দেখা যায়নি। তবে গণফোরাম এবং জেএসডির রাজনৈতিক নেতাকর্মীর সংখ্যাও হাতেগোনা কয়েকজন।

গত ১৮ অক্টোবর বিকেলে সিলেট সফরকালে জালালাবাদ গ্যাসের সিবিএ নেতাদের অভিষেক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, রাজনৈতিকভাবে জিরোরা মিলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট করেছেন। তার ফলও হবে জিরো। অস্তিত্বহীন কিছু ব্যক্তি ঐক্যফ্রন্ট করেছেন। একমাত্র বিএনপি ছাড়া তাদের কারও কোনো অস্তিত্ব নেই। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তারা কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে না।

তবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্থানীয় নেতারা অর্থমন্ত্রীর এমন বক্তব্যকে প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, অর্থমন্ত্রীর বয়স হয়েছে, কখন কী বলেন নিজেই জানেন না। আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার আগে আবুল মাল আবদুল মুহিতও ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরামের রাজনীতি করেছেন। এখন তিনিই তার সাবেক নেতাকে জিরো বলেছেন। এটা তার লোক দেখানো বক্তব্য।

জানা গেছে, ২৪ অক্টোবরের সিলেটের সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এতে সভাপতিত্ব করবেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, তত্ত্বাবধয়াক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতান মুহাম্মদ মনসুর ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা।

এদিকে, সমাবেশকে ঘিরে সিলেটে এখন পর্যন্ত বিএনপি ছাড়া ঐক্যফ্রন্টভুক্ত কোনো দলের তৎপরতা দেখা যায়নি। তবে ঐক্যের শরিক দলগুলোর নেতারা জানিয়েছেন, এসব দাবির প্রতি তাদের সমর্থন আছে। তাই ২৪ তারিখের জনসমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হবে। যদিও আওয়ামী লীগের নেতাদের দাবি, সিলেটের রাজনীতিতে প্রভাব ফেলার সক্ষমতা নেই নতুন এই জোটের।

২৪ অক্টোবরের সমাবেশ সফল করতে ইতোমধ্যে প্রস্তুতি সভা করেছে মহানগর বিএনপি। এই সভা থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ সফল করতে প্রত্যেক নেতাদের আহ্বান জানানো হয়েছে। ঐক্যফ্রন্টের অন্য দলগুলোর দৃশ্যমান কোনো তৎপরতা না থাকলেও তারা সক্রিয় রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলগুলোর নেতারা।

নাগরিক ঐক্যের সিলেট জেলা শাখার সিনিয়র সদস্য অ্যাডভোকেট দেওয়ান মিনহাজ গাজী বলেন, ২৪ অক্টোবরের সমাবেশ সফল করতে আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। রোববার অনুমতি পেয়েছি। এখন আমাদের তৎপরতা আরও দৃশ্যমান হবে।

গণফোরামের সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিলেন্দু দেব বলেন, বিএনপি বড় দল হওয়ায় তাদের কর্মকাণ্ড সহজেই সবার চোখে পড়ে। তবে আমরা সমাবেশ ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সিলেট সফর সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছি।এই সমাবেশ থেকেই একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের দাবিকে আরও জোরালো করতে চাই।

সিলেটের বিএনপি নেতারা জানান, ঐক্যফ্রন্টের ৭ দফা দাবি ও ১১ দফা লক্ষ্য সিলেটের জনসাধারণের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ২৪ অক্টোবরের সমাবেশ থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা নির্বাচনী দিকনির্দেশনা দেবেন।

সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সিলেটের সমন্বয়ক আলী আহমদ বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মানুষের মুক্তির বার্তা নিয়ে এসেছে। গণতন্ত্র উদ্ধারের দাবি নিয়ে এসেছে। তাই সিলেটের সাধারণ মানুষের মধ্যে এই ঐক্য ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। সাধারণ মানুষই ২৪ অক্টোবরের সমাবেশকে জনস্রোতে পরিণত করবে।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতারা মনে করেন, সিলেটে ভোটের মাঠে ঐক্যফ্রন্ট কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে না।
সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদউদ্দিন আহমদ বলেন, এই ঐক্যফ্রন্টের জনসম্পৃক্ততা কম। ঐক্যের বেশিরভাগ নেতারই জনভিত্তি নেই। শুধুমাত্র বিএনপি ছাড়া তাদের দলগুলোরও কোনো কার্যক্রম সিলেটে নেই। ফলে এই ঐক্য সিলেটের মানুষের মধ্যে কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে না।

দুই দফা সিলেটে সমাবেশ করার অনুমতি চেয়ে পুলিশের অনুমতি না পেয়ে হাইকোর্টে রোববার রিট করা হয়। এর দুই ঘণ্টার মধ্যে ১৪ শর্ত সাপেক্ষে অনেকটা নাটকীয়ভাবে আগামী ২৪ অক্টোবর বুধবার সিলেটে সমাবেশর অনুমতি পায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

২৪ অক্টোবর বেলা ২টায় নগরের রেজিস্টারি মাঠে সমাবেশ করবে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সিলেটে এই সমাবেশের মধ্য দিয়েই নিজেদের যাত্রা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করবে দলটি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: