সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ক্লিনটনের যৌন কেচ্ছা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য হিলারির  » «   সংসদ নির্বাচনের জন্য ৭০০ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন  » «   বাল্যবিবাহের বিশেষ বিধান ‘ধর্ষণে’ প্রযোজ্য নয়  » «   বিশ্বনাথে প্রবাসীর স্ত্রীকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায়…  » «   যেসব কারণে ইসির সভা থেকে বেরিয়ে যান কমিশনার মাহবুব  » «   সৌদি রাজপরিবারের বিরুদ্ধে সমালোচনা করলেই গুম-হত্যা!  » «   শাস্তির বিধান রেখে সম্প্রচার আইনের খসড়া অনুমোদন  » «   সম্পাদক পরিষদের তথ্যে ঘাটতি আছে: তথ্যমন্ত্রী  » «   প্রশ্নফাঁস: ঢাবির ঘ ইউনিটের ফল প্রকাশ স্থগিত  » «   আমেরিকার সতর্কতার জবাবে পাল্টা ব্যবস্থার হুমকি সৌদির  » «   বন্দরবাজারে স্বেচ্ছাসবক দলের মিছিলে পুলিশের বাধা, আটক ১  » «   সন্ত্রাসীদের হুমকি নভেম্বরেই খুন করা হবে মোদিকে!  » «   শাহবাগ-সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা বন্ধে আইনি নোটিশ  » «   ফেক এনকাউন্টার: ভারতে সাত সেনা সদস্যের যাবজ্জীবন  » «   আবারো নির্বাচন কমিশনের সভা বর্জন করলেন কমিশনার মাহবুব  » «  

সিঙ্গাপুরে নিজস্ব টয়লেট নিয়ে এসেছেন কিম জং উন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করতে এখন সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন।

ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি সিঙ্গাপুরে নিজস্ব টয়লেট নিয়ে এসেছেন উ. কোরিয়ার এই নেতা।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে বসছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের ক্যাপেল্লা হোটেলে মিলিত হবেন এ দুই নেতা। বৈঠক অংশ নিতে ইতোমধ্যে সিঙ্গাপুরে পৌঁছেছেন কিম জং উন, সঙ্গে নিয়ে এসেছেন নিজস্ব ভাসমান টয়লেট।

উত্তর কোরিয়ার এই নেতার সবসময় ভ্রমণ সঙ্গী হয় বেশ কিছু টয়লেট; এর মধ্যে একটি টয়লেট রয়েছে তার নিজের মার্সিডিজ গাড়ির ভেতরেও।

উত্তর কোরিয়ার সংবাদমাধ্যম ডেইলি নর্থকোরিয়া ২০১৫ সালে এক প্রতিবেদনে জানায়, কিম জং উনের ব্যক্তিগত ট্রেনেই শুধু তার বিশ্রাম কক্ষ আছে এমনটা নয় বরং তিনি মাঝারি অথবা ছোট আকারের যে গাড়ি অথবা বিশেষ বাহনে ভ্রমণ করেন না কেন তার সবগুলোই নকশা করা হয় পাহাড়ি অথবা তুষারাবৃত পথেও চলাচলের উপযোগী করে।

উত্তর কোরিয়ার এই নেতার শারীরিক অবস্থা নিয়ে সর্বোচ্চ গোপনীয়তা বজায় রাখা হয়। উত্তর কোরিয়ার গার্ড কমান্ডের সাবেক সদস্য লি ইয়ুন-কিওল বলেন, পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করেন না উত্তর কোরিয়ার এই নেতা। বরং সফরের সময় তার আশপাশে সবসময় রাখা হয় ভাসমান টয়লেট।

তিনি বলেন, নেতার মল পরীক্ষা করলে তার শারীরিক অবস্থার তথ্য পাওয়া যেতে পারে; যে কারণে এই বর্জ্য যেখানে সেখানে বর্জন করা হয় না।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: