সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শাস্তির বিধান রেখে সম্প্রচার আইনের খসড়া অনুমোদন  » «   সম্পাদক পরিষদের তথ্যে ঘাটতি আছে: তথ্যমন্ত্রী  » «   প্রশ্নফাঁস: ঢাবির ঘ ইউনিটের ফল প্রকাশ স্থগিত  » «   আমেরিকার সতর্কতার জবাবে পাল্টা ব্যবস্থার হুমকি সৌদির  » «   বন্দরবাজারে স্বেচ্ছাসবক দলের মিছিলে পুলিশের বাধা, আটক ১  » «   সন্ত্রাসীদের হুমকি নভেম্বরেই খুন করা হবে মোদিকে!  » «   শাহবাগ-সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা বন্ধে আইনি নোটিশ  » «   ফেক এনকাউন্টার: ভারতে সাত সেনা সদস্যের যাবজ্জীবন  » «   আবারো নির্বাচন কমিশনের সভা বর্জন করলেন কমিশনার মাহবুব  » «   বিতর্কিত ৯টি ধারা সংশোধনের দাবিতে সম্পাদক পরিষদের মানববন্ধন  » «   সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতিতে আজ ইসির গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক  » «   পৃথিবী বাঁচাতে হলে বন্ধ করতে হবে মাংস খাওয়া!  » «   শাহজালালে ৭ কেজি সোনাসহ মালয়েশিয়ার নাগরিক আটক  » «   ইরানের ‘সরকার পরিবর্তন’ করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র: রুহানি  » «   দুর্গা পূজা উপলক্ষে সব মানুষের শান্তি কামনা রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর  » «  

সিএনজি চায় না নগরবাসী, অ্যাপেই ভরসা



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক::সিএনজি চালিত অটোরিকশা চায় না নগরবাসীরা। তাদের দাবি সিএনজি ধর্মঘট সারা বছরই চলুক। প্রয়োজনে একেবারেই বন্ধ হয়ে যাক সিএনজি। তাদের ভরসা উবার পাঠাওয়ের মতো অ্যাপভিত্তিক পরিবহন সেবা। ঢাকা ও চট্টগ্রামে ২ দিন সিএনজি ধর্মঘটের খবরে প্রতিক্রিয়ায় এমনটাই মন্তব্য নগরের বিভিন্ন শ্রেণি, পেশার মানুষ।
ঢাকা ও চট্টগ্রাম জেলায় উবার-পাঠাওয়ের মতো অ্যাপসভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা বন্ধসহ আট দফা দাবিতে ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে এই দুই জেলার সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। জবাবে সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘট সারাবছর ও আজীবনের জন্য চালিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে নগরবাসী।
ঢাকা ও চট্টগ্রামে ২ দিন চললেও অটোরিকশাওয়ালাদের কাছে এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়া নগরবাসী ‘ধর্মঘট’ নিয়ে উল্টো ঠাট্টা-মশকরায় মেতেছেন। সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ও মালিকদের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের মাধ্যমে জমে থাকা ক্ষোভ ঝাড়ছেন।
সমাজিক যোগযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন গণমাধ্যমের শেয়ার করা নিউজের লিংকে বা নিজেরাই পোস্ট দিয়ে ‘সারা বছর ধর্মঘট করেন, সমস্যা নাই’; সিএনজি অটোরিকশা যেদিন ধর্মঘটে যাবে সেদিন উবার পাঠাও আরো হিট হবে; ‘ধর্মঘট করবে, শুনে খুশি হলাম, আজীবনের জন্য করলে ভালো হয়’ এমন নানা ধরনের মন্তব্য করছেন।
সিএনজি অটোরিকশা চালকদের ‘অত্যাচারীও’ বলেছেন অনেকে। আফরোজা আক্তার নামের একজন লিখেছেন, ঠিক আছে, সিএনজি চালকদের এ চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করলাম। যদি প্রয়োজন হয়, বাসে চড়বো। সালাহ উদ্দিন নামে একজন ব্যক্তি মন্তব্যে লিখেছেন তার সিএনজি অভিজ্ঞতা।
তিনি লিখেছেন, গতকাল যাত্রাবাড়ি থেকে ‘পাঠাও’তে গেলাম নিউমার্কেট ভাড়া আসলো মাত্র ১৮৬ টাকা। আর আসার সময় সিএনজিতে ৩০০টাকা তাও তার হাতে পায়ে ধরে।
অনেকেই মন্তব্য করেছেন সিএনজি চালকরা যাত্রীদের হয়রানি করে, জিম্মি করে। তাদের ‘অযৌক্তিক’ ৮ দফা দাবিকে পূরণ না হওয়ারও দাবি জানিয়েছেন অনেকে।
এরশাদুল ইসলাম নামে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, আমার মনে হয় এবার সময় এসেছে জনগণের এক হওয়ার। ওরা এক হয়ে যদি জনগণকে জিম্মি করতে পারে তবে কেন জনগন তার নিজের স্বার্থের জন্য এক হতে পারবে না?
ইশ্রাত এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেন, সিএনজি একটি জরুরি পরিবহণ। তারপরেও তাদের সমর্থনে একজন মানুষ কেও খুঁজে পাওয়া গেলনা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: