সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নির্বাচনে রোহিঙ্গাদের সম্পৃক্ততা প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির নির্দেশনা  » «   চিকিৎসা বিষয়ে খালেদার রিটের আদেশ আজ  » «   তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে যা জানতে চাচ্ছেন  » «   চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «  

সালমানের বিরুদ্ধে ‘ধর্মানুভূতিতে’ আঘাতের অভিযোগ!



বিনোদন ডেস্ক:: কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলা ইস্যুতে সম্প্রতি বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।এখন আবার হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে আইনি জটিলতায় তিনি।

জানা যায়,হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে বিহারের মোজাফফর কোর্ট পুলিশকে আদেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু সালমানের নামে নয়,এ মামলায় তার সাথে আরো ৬ জন জড়িত রয়েছেন।

এবার যে কারণে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তা হল- সালমান খান ‘লাভরাত্রি’ নামের একটি সিনেমার প্রযোজক।আর এই ছবিটিকে হিন্দু ধর্মের অনুভূতিতে আঘাত হিসেবে দেখছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।ভারতে ছবিটির মুক্তি ঠেকাতে এবং ছবির সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবিতে মামলা দায়ের করা হয়।

এ ব্যাপারে সরকারি পক্ষের উকিল বলছেন, দুর্গা পূজার মতো ধর্মীয় মহোৎসবকে ছোটো করার অভিপ্রায় নিয়েই ছবির নাম ‘লাভরাত্রি’ দেয়া হয়েছে। দূর্গা পূজার গুরুত্বপূর্ণ রাতকে ভারতে ‘নবরাত্রি’ বলা হয়।এছাড়া চলতি বছরের শুরুর দিকেও এই ছবির নাম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা অলোক কুমার।তিনি বলেছিলেন, পবিত্র ‘নবরাত্রি’কে বিকৃত করে এই নামের ব্যবহার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।আর এসব কারণেই মামলাটিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে দেশটির আদালত। শুধু তাই নয়, এরইমধ্যে তদন্তও শুরু হয়েছে। দোষী সাভ্যস্ত হলে গ্রেফতারও হতে পারেন আসামিরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: