মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অবশেষে বাড়ছে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স  » «   টানা দুই সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিলে ঝুঁকিতে পড়বে নিবন্ধন: ইসি  » «   সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করুন: বিশ্বনেতাদের প্রধানমন্ত্রী  » «   আসামের নাগরিক তালিকা সংশোধন শুরু, চলবে দুই মাস  » «   শিক্ষার উন্নয়নে মুনাফার মানসিকতা ত্যাগের আহ্বান শেখ হাসিনার  » «   ভারতে ‘গণেশ’ বিসর্জন দিতে গিয়ে ১৮ জনের মৃত্যু  » «   পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে চান ভারতীয় সেনাপ্রধান  » «   প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন  » «   কাশ্মীরে বিদ্রোহীদের টার্গেট এখন পুলিশ  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য ১৩শ কোটি টাকার মার্কিন সহায়তার ঘোষণা  » «   ট্রাক চাপায় অটোরিকশার চালকসহ নিহত ৫  » «   দুর্নীতির প্রমাণ পেলেই সিনহার বিরুদ্ধে মামলা হবে: দুদক চেয়ারম্যান  » «   মানব পাচারের ঝুঁকি বেড়েই চলেছে: জাতিসংঘে প্রতিমন্ত্রী  » «   আরপিও সংশোধন: সরকারের দিকে তাকিয়ে ইসি  » «   রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে প্রধানমন্ত্রীর ৩ প্রস্তাব  » «  

সালমানের বিরুদ্ধে ‘ধর্মানুভূতিতে’ আঘাতের অভিযোগ!



বিনোদন ডেস্ক:: কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলা ইস্যুতে সম্প্রতি বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।এখন আবার হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে আইনি জটিলতায় তিনি।

জানা যায়,হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে বিহারের মোজাফফর কোর্ট পুলিশকে আদেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু সালমানের নামে নয়,এ মামলায় তার সাথে আরো ৬ জন জড়িত রয়েছেন।

এবার যে কারণে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তা হল- সালমান খান ‘লাভরাত্রি’ নামের একটি সিনেমার প্রযোজক।আর এই ছবিটিকে হিন্দু ধর্মের অনুভূতিতে আঘাত হিসেবে দেখছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।ভারতে ছবিটির মুক্তি ঠেকাতে এবং ছবির সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবিতে মামলা দায়ের করা হয়।

এ ব্যাপারে সরকারি পক্ষের উকিল বলছেন, দুর্গা পূজার মতো ধর্মীয় মহোৎসবকে ছোটো করার অভিপ্রায় নিয়েই ছবির নাম ‘লাভরাত্রি’ দেয়া হয়েছে। দূর্গা পূজার গুরুত্বপূর্ণ রাতকে ভারতে ‘নবরাত্রি’ বলা হয়।এছাড়া চলতি বছরের শুরুর দিকেও এই ছবির নাম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা অলোক কুমার।তিনি বলেছিলেন, পবিত্র ‘নবরাত্রি’কে বিকৃত করে এই নামের ব্যবহার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।আর এসব কারণেই মামলাটিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে দেশটির আদালত। শুধু তাই নয়, এরইমধ্যে তদন্তও শুরু হয়েছে। দোষী সাভ্যস্ত হলে গ্রেফতারও হতে পারেন আসামিরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: