মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শ্রীমঙ্গলে থামছে না অসাধু ব্যবসায়ীদের অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, নিশ্চুপ প্রশাসন!  » «   জাজিরা প্রান্তে বসল ১১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ১৬৫০ মিটার  » «   দক্ষিণ সুরমায় ইজতেমার অনুমোদন এখনো মেলেনি  » «   সিলেটের ৯টি উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু  » «   শোকে স্তব্ধ শ্রীলঙ্কায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১১  » «   জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার  » «   ভারতের মিডিয়া ও বিজেপির প্রতি ক্ষুব্ধ শ্রীলঙ্কার নেটিজেনরা  » «   পড়াশোনা না করলে জীবনের অর্থ সংকীর্ণ হয়ে ওঠে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   এমডিকে ‘ওয়াসার সুপেয় পানির’ শরবত খাওয়াবেন জুরাইনবাসী  » «   হুমকি না থাকলেও সতর্ক আছে বাংলাদেশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   নকল তামাক পণ্য : হুমকিতে জনস্বাস্থ্য, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার  » «   ৬ দিনের সফরে সিলেটে পৌঁছেছেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ  » «   শাহজালাল বিমানবন্দরের টয়লেট থেকে ৪ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার  » «   ফেঞ্চুগঞ্জে ঘরে ঢুকে হত্যাচেষ্টা, ছুরিসহ আটক  » «   শ্রীলংকায় বোমা হামলায় সুনামগঞ্জের শিশু জায়ান নিহত  » «  

সালমানের বিরুদ্ধে ‘ধর্মানুভূতিতে’ আঘাতের অভিযোগ!



বিনোদন ডেস্ক:: কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলা ইস্যুতে সম্প্রতি বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে নিয়ে বিশ্বজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।এখন আবার হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে আইনি জটিলতায় তিনি।

জানা যায়,হিন্দু ধর্মানুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে সালমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে বিহারের মোজাফফর কোর্ট পুলিশকে আদেশ দেওয়া হয়েছে। শুধু সালমানের নামে নয়,এ মামলায় তার সাথে আরো ৬ জন জড়িত রয়েছেন।

এবার যে কারণে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তা হল- সালমান খান ‘লাভরাত্রি’ নামের একটি সিনেমার প্রযোজক।আর এই ছবিটিকে হিন্দু ধর্মের অনুভূতিতে আঘাত হিসেবে দেখছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।ভারতে ছবিটির মুক্তি ঠেকাতে এবং ছবির সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবিতে মামলা দায়ের করা হয়।

এ ব্যাপারে সরকারি পক্ষের উকিল বলছেন, দুর্গা পূজার মতো ধর্মীয় মহোৎসবকে ছোটো করার অভিপ্রায় নিয়েই ছবির নাম ‘লাভরাত্রি’ দেয়া হয়েছে। দূর্গা পূজার গুরুত্বপূর্ণ রাতকে ভারতে ‘নবরাত্রি’ বলা হয়।এছাড়া চলতি বছরের শুরুর দিকেও এই ছবির নাম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা অলোক কুমার।তিনি বলেছিলেন, পবিত্র ‘নবরাত্রি’কে বিকৃত করে এই নামের ব্যবহার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।আর এসব কারণেই মামলাটিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে দেশটির আদালত। শুধু তাই নয়, এরইমধ্যে তদন্তও শুরু হয়েছে। দোষী সাভ্যস্ত হলে গ্রেফতারও হতে পারেন আসামিরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: