শনিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সালমানের প্রথম ভালো লাগা কে?  » «   দুই যুবকের সঙ্গে ২০ বছর বয়সী তরুণী, এরপর…  » «   হাওয়া ভবন থেকে মানুষকে স্বস্তি দিতে ১৪ দলীয় জোট : খালিদ মাহমুদ  » «   ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে যা বললেন ওবায়দুল কাদের  » «   ভালবেসে বিয়ে, কিভাবে এতটা নির্মম হয় রনিরা?  » «   প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান ড. কামাল  » «   ভেরিফায়েড হলো মোস্তাফা জব্বারের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগ : রিমান্ডে সেই গৃহবধূ ফারিয়া  » «   সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা  » «   সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি!  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গৃহবধূ আটক  » «   ‘গর্বিত বাঙালির বিজয়ের দুই প্রতিচ্ছবি’  » «   ২৬ বছর পরে শাহরুখ!  » «   পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে পারে টুইটার  » «   সানি লিওন এবার ক্রিকেটার!  » «  

সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, বর্তমান স্ত্রীকে হত্যা



নিউজ ডেস্ক::বগুড়ার ধুনটে তালাক দেয়া স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় আঙ্গুরি খাতুন (৪০) নামে এক গৃহবধূকে তার স্বামী আবদুল মজিদ বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার পারনাটাবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর মজিদ আত্মগোপন করেছেন।

শুক্রবার দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, ধুনট উপজেলার পারনাটাবাড়ি গ্রামের মহির উদ্দিনের ছেলে আবদুল মজিদ প্রায় ২০ বছর আগে প্রথম স্ত্রীকে তালাক দেন। এরপর একই গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে আঙ্গুরি খাতুনকে বিয়ে করেন। এই সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

আঙ্গুরির ছোট ভাই রফিকুল ইসলাম ও চাচা আবদুল আজিজ অভিযোগ করেন, প্রায় ৭ বছর ধরে তালাক দেয়া স্ত্রীর সঙ্গে মজিদের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বাধা দিলে আঙ্গুরির সঙ্গে মজিদের দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। অনেকবার নির্যাতনও করা হয়েছে। গ্রামে কয়েকবার শালিস বৈঠকে মজিদ মুচলেকা দিলেও সংশোধন হননি। গার্মেন্টকর্মী সাবেক স্ত্রী ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়িতে এলে মজিদ গোপনে তার সঙ্গে দেখা করেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে আঙ্গুরির সঙ্গে মজিদের ঝগড়া হয়।

তারা দাবি করেন, মজিদ এক পর্যায়ে আঙ্গুরিকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেন। এরপর লাশ ঘরের মেঝেতে ফেলে পালিয়ে যান। ধুনট থানা পুলিশ খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে আঙ্গুরির মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

ধুনট থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। সূত্র-যুগান্তর

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: