শনিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘অন্তরঙ্গ দৃশ্য প্রয়োজন ছিল তাই করেছি’  » «   মিশরে জুমার নামাজে হামলা, নিহত ৫৪  » «   কুবিতে বিজ্ঞাপনের গেইট, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ  » «   কুমিল্লায় যুবককে হত্যা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ২  » «   ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে ট্রেনচালক নিহত  » «   ভুল চিকিৎসায় মা ও নবজাতকের মৃত্যু, ডাক্তার পলাতক  » «   বারী সিদ্দিকীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   আজ থেকে বিপিএল উৎসব চট্টগ্রামে  » «   সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিমের সমর্থনে যুক্তরাজ্যে মতবিনিময়  » «   রুশ বিপ্লবের শতবর্ষে ওয়ার্কার্স পার্টির লাল পতাকা মিছিল  » «   গাছ ভর্তি ট্রাক জব্দ  » «   গোপালগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় কৃষকের মৃত্যু  » «   কমলগঞ্জে বর্ণাঢ্য আয়োজনে খাসি (খাসিয়া) বর্ষ বিদায় উৎসব পালন  » «   জেনে নিন মিস ওয়ার্ল্ড মানুসীর ডায়েট প্লান!  » «   ধর্ষণের শিকার হয়ে পাঁচ শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ!  » «  

সাফাতসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ২৬ নভেম্বর



নিউজ ডেস্ক:: বনানীর আলোচিত ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় প্রধান আসামি সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ২৬ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকার দুই নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শফিউল আজমের আদালতে মামলার বাদীকে জেরা শেষ করেন আসামি নাঈম আশরাফের আইনজীবী। অপর আসামিদের পক্ষে বাদীকে জেরা ও পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ২৬ নভেম্বর দিন ধার্য করেন আদালত।
প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৮ মার্চ বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে জন্মদিনের পার্টির কথা বলে ডেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়। ওই ঘটনার প্রায় ৪০ দিন পর ৬ মে সন্ধ্যায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনকে আসামি করে বনানী থানায় ধর্ষণের মামলা করেন দুই ভুক্তভোগী।
৮ জুন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম দোলোয়ার হোসেনের আদালতে সাফাতসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের নারী সহায়তা ও তদন্ত বিভাগের পরিদর্শক ইসমত আরা এমি। অভিযোগপত্রে ৪৭ জনকে সাক্ষী করা হয়।
১৩ জুলাই ঢাকার দুই নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শফিউল আজম আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। আসামি সাফাত ও নাঈমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ৯ (১) ধারা এবং অপর আসামিদের বিরুদ্ধে ৯ (১) এর ৩০ ধারায় অভিযোগ গঠন করা হয়।
অভিযুক্ত পাঁচজন হলেন- আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ, তার বন্ধু সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ, সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন ও দেহরক্ষী রহমত আলী।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: