মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘সে যে এত বড় প্রতারক, তা আমার জানা ছিল না’  » «   ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ছবি, ফেসবুকে তোলপাড়!  » «   বিশ্বকাপ সরাসরি দেখাবে যেসব টিভি চ্যানেল  » «   নিজের ঘরের মাদক ব্যবসায়ীদের ধরুন  » «   সেলিমা রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «   একাদশ সংসদ নির্বাচন : বিএনপিকে নিয়ে দুই কৌশল আ’লীগের  » «   সিলেট পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক  » «   মন্ত্রী-সচিবরা পাবেন ৭৫ হাজার টাকার মোবাইল  » «   রাজধানীতে নিরাপত্তা কর্মীকে খুন করে টাকা লুট  » «   চুয়াডাঙ্গার মাদক সম্রাট ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত  » «   বাসের চাপায় হাত হারিয়ে নিহত : রাজীবের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ মঙ্গলবার  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য খুলনার ভোটারদের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ তামাশা’  » «   অবশেষে খোঁজ পাওয়া গেল সৌদি যুবরাজের!  » «   সাদা চাদরে ‘সতীত্বের পরীক্ষা’ দিতে হলো না ঐশ্বর্যকে  » «   অপুর ঘরে কোন ধর্মে বেড়ে উঠছে আব্রাম?  » «  

সাপাহার রিপোর্টার্স ফোরামে সংবাদ সম্মেলন



মনিরুল ইসলাম,সাপাহার(নওগাঁ)প্রতিনিধি: সাপাহার রিপোর্টার্স ফোরামে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার বিকেলে রিপোর্টার্স ফোরামে সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল আজিজ লিখিত বক্তব্যর মাধ্যমে সাংবাদিকদের জানান,গত ৬ইজুন রাত্রী আনুমানিক ১১টার দিকে তার ভাই আঃ সালাম(৪৮) উপজেলার হরিপুর মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকলে প্রতিপক্ষ গ্র“পের বেশ কয়েকজন ব্যাক্তি পূর্ব শত্র“তার জের ধরে তার ভাইয়ের সাথে বিভিন্ন কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চড়াও হয়ে বেদম হারে মারপিট শুরু করে।পরবর্তী সময়ে যখন সে চিৎকার শুরু করে তখন আর ¯ত্রী আছিয়া বেগম(৪৫), ছেলে সোলেমান আলী (৩২)নুরুজ্জামান (৪০) সুলতান (২৩) নামের একই পরিবারের সকলে বের হয়ে আসলে তাদেরকেও প্রতিপক্ষরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মারপিট করে জখম করে।বর্তমানে আছিয়া,সালাম ও নুরুজ্জামান রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। উল্লেখ্য যে আছিয়া বেগমের বাম হাতের দু’টি আঙ্গুল অপারেশন করে কেটে ফেলা হয়েছে।আর এ ঘটনার সূত্র ধরে সালামের পিতা হোসেন উদ্দীন(৮০) বাদী হয়ে সাপাহার থানায় ৭ জুন ২০.৩০ঘটিকায় ১১ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।মামলার আসামীরা হলো, উপজেলার চাঁচাহার গ্রামের মৃত আ. মান্নানের ছেলে মেহেদী(৪০), সোবহান (৪৮), আ. জব্বার(৪৬), ওহাব(৪২) ও একই গ্রামের আ. সামাদের ছেলে মশিউর রহমান(৩০),আলম(২৮),মোস্তাফিজ(২৭),অছির উদ্দীনের ছেলে মনা বাবু(৩২), কাশেমের ছেলে আরব(৩০),রাশেদ(৩৮) ও মৃত আব্দুল গনির ছেলে আব্দুস সামাদ(৬০)।যার নং-০৪,ধারা১৪৩/৩২৩/৩২৪/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৩৫৪/৩৭৯/৫০৬/১১৪। কিন্তু ওই দিনই ১ ঘন্টা পর প্রতিপক্ষ গ্র“পের লোকজন নিজেদের বাঁচার জন্য ১ ঘন্টা পর মশিউর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।
তিনি আরও জানান, থানা পুলিশে মামলা করার পর টাকার জোরে মশিউরের মামলা ১ ঘন্টা পরে করার পরও তার মামলার তদ›ত হয়েছে। কিন্তু আমাদের দাখিলকৃত মামলার ব্যাপারে কোন পদক্ষেপই গ্রহন করেননি থানা পুলিশ। এই ধরণের ন্যক্কার জনক ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন আব্দুল আজিজ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: