শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের সুপারিশ কানাডিয়ান দূতের  » «   সালমান খানের সঙ্গে শাকিব খানের তুলনা করলেন পায়েল  » «   বিশ্বকাপ মিশনে নামার আগে মক্কায় পগবা  » «   সিটি নির্বাচনের প্রচারে এমপিরা কি অংশ নিতে পারবেন?  » «   তালিকা অনুযায়ী সবাইকে ধরা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   আমজাদ হোসেনের জার্মানি পতাকা এবার সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার  » «   ভক্তদের প্রশ্নের জবাব দিয়ে কক্সবাজার ছাড়লেন প্রিয়াঙ্কা  » «   জাপানে বন্ধুর ক্লাবই নতুন ঠিকানা ইনিয়েস্তার  » «   মুক্তামনির মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   ‘ভারত থেকে এক বালতি পানিও আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী’-রিজভী  » «   চৌদ্দগ্রামে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত  » «   জবিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতার ওপর হামলা  » «   নারীর মন-শরীর নিয়ন্ত্রণ করে পুরুষ আধিপত্য চায়: বিদ্যা  » «   আখাউড়ায় হচ্ছে ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট  » «   ২১ ঘণ্টা রোজা রাখছেন ৪ দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমান!  » «  

সাপাহারে নব মুসলিম স্ত্রীকে নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচিয়ে ঘরে আনার জন্য রিপোর্টার্স ফোরামে স্বামীর সংবাদ সম্মেলন



প্রেস বিজ্ঞপ্তি: সাপাহার রিপোর্টার্স ফোরামে নব মুসলিম স্ত্রীকে হিন্দু ও নামধারী কিছু কুচক্রী মহলের শারীরিক নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষার জন্য তীব্র নিন্দা ও বলিষ্ট কন্ঠে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রেখেছে ভুক্তভোগী স্বামী মনিরুল ইসলাম।
রোববার বিকেল ৩টার দিকে রিপোর্টার্স ফোরামের নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে ভুক্তভোগী স্বামী উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের হযরত আলীর পুত্র মনিরুল ইসলাম(২৫)। তিনি তার লিখিত বক্তব্যে সাংবাদিকদের জানান, উপজেলার অন্তর্গত সাহাপাড়া গ্রামের সুনীল সাহার মেয়ে টুম্পা রাণী সাহা(২০)’র সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ চলাফেরার এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে গভীর ভালোবাসার সৃষ্টি হয়। আর এই ভালোবাসাকে বাস্তব রূপদান করতে গিয়ে তারা গত ২২ মে নওগাঁ নোটারী পাবলিকে উপস্থিত হয়ে প্রথমে ওই হিন্দু মেয়ে মুসলমান ধর্মে ধর্মান্তরিত হয় এবং মুসলিম ধর্ম অনুযায়ী নাম রাখে জান্নাত ইসলাম মোনা। ওই দিনই নোটারী পাবলিকের কার্যালয়ে বিবাহ সম্মন্ন করেন। পরে ২৫ শে মে কাজী অফিসে উপস্থিত হয়ে মুসলিম শরীয়ত অনুযায়ী যথারিতী তাদের বিবাহ রেজিষ্ট্রি করে নেয়। পরবর্তী সময়ে মনিরুল তার নব মুসলিম স্ত্রীকে নিজ বাড়ীতে আনতে চাইলে ওই মেয়ের বাবা-মা তাকে জোর জবরদস্তি করে বাড়ীতে আটকিয়ে রাখে। কিছু কুচক্রী মহলের জোর চক্রান্তে ওই মেয়েকে ঘরে তালা বদ্ধ করে রেখে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতে থাকে। শুধু তাই নয় সে যদি পুনরায় হিন্দু ধর্মে ফিরে না আসে তাহলে তাকে জ্যান্ত মেরে ফেলার হুমকি দেয় ও তার মুসলিম স্বামীকে তালাক প্রদাণের জন্য জোর অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। আর যদি এ ধরণের কাজ না করে তাহলে তাকে মেরে পিটে তার স্বামীকে তালাক দেওয়ার জন্য বাধ্য করা হবে মর্মেও হুমকি প্রদান করছে ওই দুর্বৃত্ত কুচক্রী মহল। বর্তমানে তাকে লোহার শেকল দিয়ে বেধে রেখে একের পর এক শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হচ্ছে। এ ব্যপারে মনিরুল আরো জানায়, এখানে বেশ কিছু স্থানীয় নের্তৃবৃন্দের হাত থাকার ফলে সে নিরুপায় হয়ে তার উপযুক্ত প্রমানাদি সংযুক্ত করে সাপাহার থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছে। বর্তমান সময়ে তার সদ্য নব মুসলিম স্ত্রীকে নিজের কাছে ফিরিয়ে পাওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসন সহ উর্দ্ধতন সকল প্রসাশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: