সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আবরার হত্যায় এবার মুজাহিদের স্বীকারোক্তি  » «   তিন সপ্তাহ ধরে কার্যালয়ে যান না যুবলীগ চেয়ারম্যান  » «   নোবেল পুরস্কার র‌্যাব-পুলিশের হাতে নয় : রিজভী  » «   বুরকিনা ফাসোতে মসজিদে ঢুকে ১৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ  » «   সৌদি-ইরান উত্তেজনা মধ্যস্ততায় তেহরানের পথে ইমরান খান  » «   ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, ৭৬ শতাংশ ফেল  » «   সরকার ছাত্র রাজনীতি বন্ধের পক্ষে নয়: ওবায়দুল কাদের  » «   ৮ দিন পর ফিরলেন আমিরাতের প্রথম মহাকাশচারী  » «   শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত দলের সদস্য নিহত  » «   ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি নিষিদ্ধ চেয়ে হাইকোর্টে রিট  » «   টাইফুনে লন্ডভন্ড জাপান, নিহত বেড়ে ১৯  » «   আবরারের খুনিকে কারাগারে গণপিটুনি  » «   রাজীবের মৃত্যু: ১০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ স্বজন পরিবহনকে  » «   আমি বহু ইস্যুতেই নোবেল পাই, ওরা দেয় না: ট্রাম্প  » «  

সাকিবের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে অবশেষে আফগান বধ বাংলাদেশের



স্পোর্টস ডেস্ক:: আফগানিস্তানের দেওয়া ১৩৯ রানের মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে মাত্র ১২ রানে দুই ওপেনারের উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায় বাংলাদেশ। সেই অবস্থা থেকে দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে দলকে খেলায় ফেরানোর পাশাপাশি জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন সাকিব আল হাসান। তার ৪৫ বলের অপরাজিত ৭০ রানের ইনিংসে ভর করে ৪ উইকেটে জয় পায় টাইগাররা।

শনিবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ষষ্ঠ ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৩৯ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান। সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপাকে পড়ে যায় বাংলাদেশ। মাত্র ১২ রান সংগ্রহ করতেই সাজঘরে ফেরেন দুই ওপেনার লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত। আগের তিন ম্যাচে ১৯, ০ ও ৩৮ করা লিটন এদিন ফেরেন মাত্র ৪ রানে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগের ম্যাচে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকে ১১ রান করেছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। শনিবার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে নেমে মাত্র ৫ রানে ফেরেন ২১ বছর বয়সী এ ওপেনার। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তারা ৫৮ রান যোগ করেন। দলীয় ৭০ রানে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন মুশফিক। তার আগে ২৫ বলে ২৬ রান করেন জাতীয় দলের এ নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান।

মুশফিকের বিদায়ের পর থেকেই আসা-যাওয়ার মিছিলে অংশ নেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান রুম্মন ও আফিফ হোসেনরা। ১৫.৫ ওভারে দলীয় ১০৪ রানে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরেন তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন।

শেষ দিকে জয়ের জন্য ২৫ বলে প্রয়োজন ছিল ৩৫ রান। আট নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামা মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে সঙ্গে নিয়ে ঠান্ডা মাথায় ব্যাটিং করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন সাকিব আল হাসান। দলের জয়ে ৪৫ বলে ৮টি চার ও এক ছক্কায় হার না মানা ৭০ রানের ইনিংস খেলেন সাকিব।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: