সোমবার, ২০ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের মামলায় প্রথম দিনই সাক্ষী আসেনি



সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের মামলায় প্রথম দিনই সাক্ষী আসেনি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে প্রথম দিনই আদালতে সাক্ষী হাজির করতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ। বৃহস্পতিবার মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য ছিল। আদালতে কোনো সাক্ষী হাজির করতে না পারায় রাষ্ট্রপক্ষ সময়ের আবেদন করে। পরে বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক কেএম শামসুল আলম সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১৬ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, প্রবীর সিকদার ২০১৫ সালের ১০ আগস্ট তার ফেসবুকে ‘আমার জীবনের শঙ্কা তথা মৃত্যুর জন্য যারা দায়ী থাকবেন’ এ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দেন। শিরোনামের নিচে তার মৃত্যুর জন্য যারা দায়ী থাকবেন- এমন তিনজনের নাম উল্লেখ করেন। এদের মধ্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রীর (এলজিআরডি) খন্দকার মোশাররফ হোসেনের নাম এক নম্বরে ছিল।

এ ধরনের স্ট্যাটাস দেয়ায় মন্ত্রীর মানহানি ঘটেছে ও ফৌজদারি অপরাধ সংঘঠিত হয়েছে বলে ২০১৫ সালের ১৬ আগস্ট প্রবীর সিকদারকে আসামি করে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে মামলা করেন জেলা পূজা উদযাপন কমিটির উপদেষ্টা স্বপন পাল।

পরে ২০১৬ সালের ১৬ মার্চ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মনির হোসেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় সাংবাদিক প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেন। ২০১৬ সালের ৪ আগস্ট প্রবীর সিকদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালে বিচারক কে এম শামসুল আলম।

প্রবীর সিকদার বর্তমানে দৈনিক বাংলা ৭১, উত্তরাধিকার-৭১ নিউজ অনলাইন পত্রিকা ও উত্তরাধিকার নামের একটি ত্রৈমাসিক পত্রিকার সম্পাদক।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: