সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
গাদ্দাফিকে হত্যায় ফ্রান্সের হাত থাকার ঘটনা ফাঁস!  » «   গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া অভিনব প্রতিবাদ  » «   আইনজীবীর সহকারী হত্যা : ১২ জনের মৃত্যুদণ্ড  » «   শয়তানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক সৌদি যুবরাজের!  » «   মন্দিরের নিরাপত্তায় মাদ্রাসা ছাত্ররা  » «   ভোলার সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলা, আসামি ৫ হাজার  » «   সৌদিতে নিহত ১১ বাংলাদেশির মধ্যে ৯ জনের পরিচয় প্রকাশ  » «   টনক নড়াতে টনিক  » «   শিক্ষামন্ত্রীর যেসব যুক্তি খণ্ডন করতে পারেননি ননএমপিও শিক্ষক নেতারা  » «   প্রথমবার মহাকাশে হাঁটলেন যে দুই নারী  » «   যে কোনো মুহূর্তে গ্রেপ্তার হচ্ছেন যুবলীগের বহিস্কৃত চেয়ারম্যান  » «   ‘জনগণ ভোট দিতে পারেনি’ বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন মেনন  » «   ঐক্যফ্রন্টে মেনন?  » «   পরীক্ষা জালিয়াতি: এমপি বুবলীকে প্রধানমন্ত্রীর তলব  » «   মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ৫  » «  

সরকার নির্বাচনের লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড করলে আমরা নির্বাচনে আসতে পারতাম: মাহবুব



image_2485.mahbubur-rahman_11066_24493-300x180নিউজ ডেস্ক :: সরকার ও নির্বাচন কমিশনার নির্বাচনের লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড সৃষ্টি করলে আমরা আগেই নির্বাচনে আসতে পারতাম বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে.(অব.) মাহবুবুর রহমান।
মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) আয়োজিত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।
তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচন মুখী ও গণতান্ত্রিক দল। সব সময়ই সুষ্ঠু নির্বাচনের পক্ষে। আমরা নির্বাচন বর্জন করতে চাই না। চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে সকলের সাথে মতামত নিচ্ছেন। তবে সরকার এখন পযর্ন্ত সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করে নাই।
সিটি নির্বাচন নিয়ে তৃণমূল থেকে দলের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী সদস্য পর্যন্ত আলোচনা চলছে। সরকার ও নির্বাচন কমিশনার নির্বাচনের লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড সৃষ্টি করলে আমরা আগেই নির্বাচনে আসতে পারতাম। আমরা এখন আশা করছি তারা নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করবে এবং সে নির্বাচনে আমরা অংশ গ্রহণ করবো।
বিএনপি এই শীর্ষ নেতা বলেন, জিয়াউর রহমানের আহবানে এ দেশের মানুষ সাড়া দিয়ে সমস্ত ত্যাগ তিতীক্ষা করে স্বাধীনতা অর্জন করেছিল। মুক্তিযোদ্ধার মূল চেতনা ছিল গণতন্ত্র। এখন গণতন্ত্রের নামে স্বৈরাতন্ত্র চলছে। ৪৪ বছরেও রাজনৈতিক সৃষ্টাচার তৈরি হয়নি। তার জন্যই দেশ চরম বিপর্যয় ও অস্থিরতা চলছে।
তিনি বলেন, গণতন্ত্র পূন:উদ্ধারের জন্য আন্দোলন চলছে। আমরা আন্দোলনে সচল হয়েছি। আন্দোলনের কারণে দেশে ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে জানতে পেরেছে বাংলাদেশে গণতন্ত্রের সংকট চলছে। সংকট সমাধানে জাতীয় ঐক্য গঠন করে গণতন্ত্র উদ্ধার করতে হবে।
বিএনপির ভাইসচেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও বিশিষ্ট রাষ্ট্র বিজ্ঞানী ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ, কল্যাণপার্টির চেয়ারম্যান মেজর (অব.) সৈয়দ মোহাম্মাদ ইব্রাহিম বীর প্রতীক, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ, ব্যারিস্টার হায়দার আলী, বিএনপির সহ দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন, স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: