রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

সম্পত্তির জন্য মাকে বেঁধে রেখেছে সন্তানরা



সম্পত্তির জন্য মাকে বেঁধে রেখেছে সন্তানরানিউজ ডেস্ক:: বাড়ি আত্মসাতের জন্য মা নাসিমা বেগমকে (৪০) পাগল আখ্যায়িত করে দীর্ঘদিন থেকে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছে তার সন্তানরা।স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, বরিশালের পশ্চিম কাউনিয়া হাওলাদার সড়কের স্থায়ী বাসিন্দা বিধবা চম্পা বেগমের কন্যা নাসিমা বেগমের সাথে জনৈক আলতাফ হোসেনের বিয়ে হয়। এরপর থেকে তারা স্বামী-স্ত্রী (নাসিমা ও আলতাফ) স্থানীয় বিড়ি কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের ২ পুত্র ও ১ কন্যা সন্তান রয়েছে।

সূত্রে আরও জানা গেছে, সম্প্রতি সময়ে চম্পার মৃত্যুর পর ওই বাড়ির মালিক হন নাসিমা বেগম। এরইমধ্যে বিগত আট বছর পূর্বে নাসিমার স্বামী আলতাফ হোসেন দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র চলে যায়। এরপর থেকেই নাসিমা অনেকটা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পরেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নাসিমা বেগমের নিকট স্বজনরা জানান, তার (নাসিমা) বড়পুত্র রাজু ইসলাম (২৫) বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ির একটি ঘরে সুখে শান্তিতেই রয়েছে। একই বাড়িতে কন্যা লাবনী বেগমও স্বামীর সংসার নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। ছোট ছেলে রাজন ৮ বছরের শিশু।

স্বজনরা আরও জানান, রাজু ও লাবনী মিলে তাদের মা নাসিমা বেগমকে পাগল আখ্যায়িত করে কোন প্রকার চিকিৎসা সেবা না দিয়েই ঘরের একটি বারান্দায় দীর্ঘদিন থেকে শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছে। নাসিমার নিকট স্বজনরা চিকিৎসার কথা বললে কিংবা তার খোঁজখবর নিতে ওই বাড়িতে আসলে রাজু ও লাবনী তাদেরকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়।

স্থানীয়রা জানান, নাসিমা বেগমের সম্পত্তি দখল করার জন্য রাজু ও লাবনী তাদের মাকে পাগল আখ্যায়িত করে কোন প্রকার চিকিৎসা না দিয়েই জোরপূর্বক শিকল দিয়ে বেঁধে রেখেছে। এমনকি তাকে ঠিকমতো খাবারও দেয়া হচ্ছেনা বলে জানান তারা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: