শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাবলিক পরীক্ষার সব ফি দেবে সরকার  » «   বাচ্চারা সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ইভিএম, দাবি লালুপুত্রের  » «   আগামীকাল প্রাথমিকের প্রথম ধাপের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা  » «   পরাজিত হওয়া মানেই হার নয়: মমতা  » «   কুলাউড়ায় ওজন বাড়াতে চিংড়িতে বিষাক্ত জেলি!  » «   শতবর্ষী বৃদ্ধাকে ধর্ষণ: ‘আমাকে ছেড়ে দাও, আমি রোজা রাখছি’  » «   কিছুটা সময় লাগলেও ইসরাইল-আমেরিকার পতন অনিবার্য: ধর্মীয় নেতা  » «   মেয়াদোত্তীর্ণ সেমাই ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরি: সিলেটে ওয়েল ফুডকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা  » «   একক দল হিসেবেই ম্যাজিক ফিগারে মোদির বিজেপি!  » «   পারিবারিক কলহে সৎ মাকে কুপিয়ে জখম করেছে ছেলে  » «   রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে নিয়োগ দেয়া হবে: অর্থমন্ত্রী  » «   পবিত্র কোরআন কেটে ভেতরে ইয়াবা পাচার, ৩ রোহিঙ্গা আটক  » «   গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একই পরিবারের চার জন নিহত  » «   খালেদার কারামুক্তি, এবারও ‘হ্যান্ডল’ করতে পারেনি বিএনপি!  » «   বালিশ মাসুদের খোলা চিঠি  » «  

সবজির বাজারে আগুন



নিউজ ডেস্ক::রাজধানীর সবজি বাজারে ব্যাপক দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সম্প্রতিক সময়ের টানা বৃষ্টির অজুহাতে এই বাড়িয়েছে পাইকারী বিক্রেতারা। পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও ৩৫ থেকে ৪০ টাকার নিচে পাওয়া যাচ্ছে না কোন সবজি। তবে আলুর দাম একটু কম রয়েছে।

রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বেগুন প্রতি কেজি ৬০ টাকা, ছোট বেগুন প্রতি কেজি ৪০ টাকা ও কালো বেগুন ৫০ থেকে ৫৫ টাকা, করলা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা, পটল বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা, শিম ৫০ থেকে ৫৫ টাকা, ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা, বরবটি বিক্রি ৬০ টাকা, ঢেঁড়স বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা, মূলা ৪০ থেকে ৫০ টাকা, মিষ্টি আলু ৪০ টাকা, কাঁচা কলা প্রতি হালি ছিল ২৫ টাকা, পেঁপে ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। বাজারে মান ভেদে আলু বিক্রি হচ্ছে ১৬ টাকা থেকে ২০ টাকায়। সালাদের উপকরণ শসা মান ভেদে ৩০ থেকে ৪০ টাকা, লেটুস পাতা ২৫ টাকা আটি, লেবু হালি ১২ থেকে ২০ টাকা, কাঁচা মরিচ প্রতি কেজি ৬০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

শাকবাজারে দাম বৃদ্ধির প্রভাব পড়েনি পাট শাক প্রতি আটি বিক্রি হচ্ছে ৫ টাকায়, লালশাক প্রতি আটি ৫ থেকে ৮ টাকা, কলমি শাক ৫ টাকা আটি, পুঁইশাক আটি ২০ টাকা এবং লাউ শাক আটি ২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে বাজারে তেমন পরিবর্তন আসেনি মাংসের দামে। প্রতি কেজি গরুর মাংস এখনও ৪৫০ টাকা থেকে মানভেদে ৫২০ টাকায় পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া খাশির মাংস ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা এবং ফার্মের মুরগি ১৫০ থেকে ১৫৫ টাকা কেজি, ব্রয়লার প্রতি কেজি ১৮০ টাকা ও পাকিস্তানি কর্ক প্রতি হালি ৮০০ থেকে ১২ শত টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে বাজারে প্রতি কেজি তেলাপোয়া, পাঙ্গাস বা সিলভারের মত মাছ ১২০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা দরে কেজি। আর দেশি কই, বোয়াল, কাজলী বা টেংরা কিনতে হলে গুনতে হবে ৪০০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা, বড়-মাঝারি রুই, কাতল বা মৃগেল ২২০ টাকা থেকে ৩২০ টাকা পর্যন্ত দামে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া বাজারে ৬০০ থেকে ৭০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের হালি আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার টাকা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: